• প্রচ্ছদ » » এ শহর কি চোরের শহর হবে নাকি সৎ মানুষের শহর হবে?


এ শহর কি চোরের শহর হবে নাকি সৎ মানুষের শহর হবে?

আমাদের নতুন সময় : 20/10/2019

পীর হাবিবুর রহমান

শহরে চোর বলছে আমিই চোর, আমি কালো বিড়াল, দল বলছে এই আমাদের অহংকার ‘চোর’। আপনার শহরে একটা মাথামোটা কালো কুৎসিত চোর আছে, জনগণের সম্পদ লুট করেছে, তদবির বাণিজ্য করেছে, অনেক আকাম করেছে। অনেক টাকা ও সম্পদ দশ বছরে বানিয়ে গরম সইতে পারছে না। বেয়াদব একটা। আপনারা সবাই তাকে চিনেন। জেল তার সামনে কিন্তু চক্ষু লজ্জায় কেউ তার নাম নিলেন না। শুধু তাকে দেখলে বলেন, কে যায়? একদল মানুষ বলে চোর যায়, কালো বিড়াল যায়, কালো গÐার যায়। ঘারমোটা নির্লজ্জ চোরের কোনো শরম নেই। দুর্নীতির টাকার কাছে, অবৈধ সম্পদের কাছে ইজ্জত তার নেই। তার এক ভাই আছে, খালি খাই খাই। একবার শহরের গরুর খোঁয়াড়ও ইজারা নিয়েছিলো। আদালতপাড়ার টাউট, হাজিরায় হাজিরায় আসামির কাছে টাকা চায়, গরিব বাড়ি বাড়ি কাজ করা বুয়ারাও রেহাই পায় না। তার টাকা চাই। আরেক ভাই জীবনে কতো কিছু করেছে, তদবিরে তকদির থেকে হেনো বাণিজ্য নেই, দেশে-বিদেশে এমন কেউ নেই যে টাকা পয়সা পায় না, তার নিজের কিছু কেনার সামর্থ্য নেই। ধানমন্ডি ২৭ নম্বরে একজনের ফ্লাট দখল করেছে চোর ভাইয়ের ক্ষমতার জোরে।
যাক এখন আপনার শহরে অনেকেই জানে না চোরটা আসলে কে? হঠাৎ একদিন সেই চোর ও তার দলের জেলা কমিটি বৈঠক করে সিদ্ধান্ত প্রস্তাব নিয়ে বললো, আমিই কালো বিড়াল চোর, এই আমাদের চোর। বিষয়টি উত্তম না? সারাদেশে এভাবে দলগুলো যদি চোর চিনিয়ে দেয় ও চোর স্বীকার করে নেয়, আমিই চোর, কেমন হয়? খুব শিগগির চোরদের অনেক অজানা তথ্য জানাবো। আপনি আপনার মতামত দিন, এ শহর কি চোরের শহর হবে নাকি সৎ মানুষের শহর হবে? ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]