• প্রচ্ছদ » প্রথম পাতা » দেশে ক্যাসিনোর কোনো অস্তিত্ব নেই বলছে পুলিশের মত, সুনির্দিষ্ট আইন প্রয়োজন


দেশে ক্যাসিনোর কোনো অস্তিত্ব নেই বলছে পুলিশের মত, সুনির্দিষ্ট আইন প্রয়োজন

আমাদের নতুন সময় : 20/10/2019

 

ইসমাঈল ইমু : দেশে এখন কোনো ক্যাসিনোর অস্তিত্ব নেই দাবি করে র‌্যাব জানিয়েছে, সন্দেহভাজনরা নজরদারিতে থাকবেন। পুলিশ বলছে, ক্যাসিনো সংক্রান্ত অপরাধ দমনে সুনির্দিষ্ট আইন প্রয়োজন। নিরাপত্তা বিশ্লেষকদের মতে, সমাজের বিভিন্ন স্তরে অনিয়ম বন্ধে এ ধরনের অভিযান চলমান রাখতে হবে।
গত ১৮ সেপ্টেম্বর ক্যাসিনোবিরোধী অভিযান শুরুর দিন গ্রেপ্তার হন যুবলীগের নেতা খালেদ মাহমুদ ভুঁইয়া। পরে তাকে যুবলীগ থেকে বহিস্কার করা হয়। ২০ সেপ্টেম্বর ৭ দেহরক্ষীসহ জি কে শামীম, কলাবাগান ক্রীড়া চক্রের সভাপতি শফিকুল আলম ফিরোজ, ২৬ সেপ্টেম্বর বিসিবি পরিচালক লোকমান ভূঁইয়া, ৩০ সেপ্টেম্বর অনলাইন ক্যাসিনোর হোতা সেলিম প্রধান গ্রেফতার হন। ৬ অক্টোবর গ্রেফতার হন ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাট ও আরমান। সব মিলিয়ে এখন পর্যন্ত ক্যাসিনো সংক্রান্ত অপরাধে গ্রেপ্তার হয়েছেন ১৮ জন। এছাড়া ২০১ জনকে আর্থিক জরিমানার পাশাপাশি ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে কারাদন্ড দেয়া হয় তিন গডফাদারসহ শতাধিক ব্যক্তিকে। ১১টি ক্যাসিনো ও ক্লাবে অভিযান পরিচালনা করে জব্দ হয়েছে কয়েক কোটি টাকার সামগ্রী। গ্রেপ্তারকৃতদের বিরুদ্ধে অস্ত্র, মাদক ও মানি লন্ডারিং আইনে মামলা হয়েছে।
কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইমের প্রধান মনিরুল ইসলাম বলেন, প্রকাশ্যে জুয়া আইন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের মধ্যে কার্যকর নেই। এ বিষয়ে আইন থাকলে ভবিষ্যতে ক্যাসিনো গড়ে উঠবে না। এই মুহূর্তে বলতে পারি, ঢাকাতে কোনো ক্যাসিনোর অস্তিত্ব নেই।
র‌্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক লে. কর্নেল সারোয়ার বিন কাশেম বলেন, আমাদের কাছে কেউ অভিযোগ নিয়ে আসলে আমাদের নিয়মের মধ্যে যা রয়েছে সেই অনুযায়ী আমরা ব্যবস্থা নিব। ক্যাসিনো সংশ্লিষ্ট মামলাগুলোর মধ্যে নয়টি তদন্ত করছে র‌্যাব। বাকি মামলাগুলো সংশ্লিষ্ট থানা, সিআইডি এবং গোয়েন্দা পুলিশ তদন্ত করছে। তদন্তে আর কারো সংশ্লিষ্টতা মিললে গ্রেপ্তার করা হবে বলে জানায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]