বিক্ষোভে অচল বার্সেলোনা, ১৭ জনকে আটক করেছে পুলিশ

আমাদের নতুন সময় : 20/10/2019

শাহনাজ বেগম : কাতালান বিচ্ছিন্নতাবাদী নেতাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশের পর দেশটির পুলিশ ও বিক্ষোভকারীদের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হলে অচল হয়ে পড়েছে বার্সেলোনা। এক বিবৃতিতে পুলিশ জানিয়েছে, শুক্রবার প্রায় ৫ লাখ কাতালান বিক্ষোভকারী বার্সেলোনার রাস্তায় নেমে আসে। তারা বার্সেলোনার রাজপথে জড়ো হয়ে ‘স্বাধীনতা চাই’, ‘রাজনৈতিক নেতাদের মুক্তি চাই’ এসব স্লোগান দিতে থাকে। বিবিসি
কাতালানের আঞ্চলিক নেতা কুইম তোরা শান্তিপূর্ণভাবে বিক্ষোভে যারা অংশ নিয়েছে তাদের প্রশংসা করেছেন। বিক্ষোভকারীদের বিশাল দল সড়কে জড়ো হলে বার্সেলোনা শহরের সমস্ত কাজকর্ম বন্দ হয়ে যায়। বুধবার থেকে জিরোনা, তারাগোনা, ভিচ, মারতোরেলসহ অন্য শহর থেকে পায়ে হেঁটে কাতালোনিয়ার রাজধানী বার্সেলোনায় জড়ো হন তারা। স্পেনের সংবাদপত্র এল পেস জানিয়েছে, তারা স্পেন-ফ্রান্স সীমান্তে একটি মোটরওয়ে অবরুদ্ধ করে দিলে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষের সৃষ্টি হয়। এ ঘটনায় আহত ৬২ জনের মধ্যে বারসেলোনার ১৭ জন রয়েছে।
রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগে স্পেনের স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চল কাতালোনিয়ার নয় নেতাকে কারাদ- দেয়ায় গত সোমবার থেকে বিক্ষোভ শুরু করে স্বাধীনতাকামী কাতালানের জনগণ। বিক্ষোভের পঞ্চম দিনে কাতালোনিয়ার পতাকা হাতে রাস্তায় নেমে সেন্ট্রাল বার্সেলোনা অচল করে দেয়। প্রথমদিকে এই বিশাল জনসমাবেশ শান্তিপূর্ণ থাকলেও পরের দিকে তা সহিংস হয়ে ওঠে। বিক্ষোভকারীদের মধ্যে কয়েকজন রাস্তা অবরোধ করে ময়লার কনটেইনারে আগুন ধরিয়ে দেন। তারা দাঙ্গা পুলিশকে লক্ষ্য করে পাথর ছুঁড়লে পুলিশও তাদের দিকে কাঁদানে গ্যাস ও রাবার বুলেট ছোড়ে এবং লাঠি হাতে বিক্ষোভকারীদের পাল্টা ধাওয়া করে। সম্পাদনা : রাশিদুল




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]