ব্রেক্সিট ভোটে বিপর্যয়কর পরাজয় বরিসন জনসনের, বিপক্ষে ৩২২-পক্ষে ৩০৬

আমাদের নতুন সময় : 20/10/2019

নূর মাজিদ : আগামী ৩১ অক্টোবর ব্রেক্সিট অনুষ্ঠানের হাউজ অব কমন্সের ভোটাভুটিতে আকস্মিক পরাজয়ের মুখ দেখেছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। অথচ প্রাথমিক পূর্বাভাসে ন্যূনতম ব্যবধানে বিজয়ের আভাস পাওয়া গিয়েছিলো। শনিবার আর্জেন্টিনার সঙ্গে ১৯৮২ সালের ফকল্যান্ড যুদ্ধের দীর্ঘ ৩৭ বছর পর ছুটির দিনে এই প্রথম জরুরী ভোটের আয়োজন করা হয়। এদিন সাবেক কেবিনেট মন্ত্রী অলিভার লিটউইনের আনা প্রস্তাব সমর্থনে ভোট দেন ৩২২ জন হাউজ অব কমন্স এমপি। অন্যদিকে, বরিসের পরিকল্পনার পক্ষে ভোট দেন ৩০৬ জন। ফলে নির্ধারিত দিনে চুক্তিহীন ব্রেক্সিটের সম্ভাবনা ভেস্তে গেলো বরিসের। খবর : দ্য গার্ডিয়ান, বিবিসি, দ্য ইন্ডিপেন্ডেন্ট, স্কাই নিউজ, ফরেন পলিসি ডটকম।
ভোটের আগে বরিসের ব্রেক্সিট পরিকল্পনার পক্ষে সমর্থন দিয়েছিলেন ৩১০ জন এমপি(সম্ভাব্য)। পাশের জন্য প্রয়োজন ছিলো ৩২০ ভোটের। অন্যদিকে, বিরোধীতা করেছিলেন ৩০২ জন। বিরোধিতাকারিদের সিংহভাগই লেবার দলের। বরিসের নিজ দল কনজারভেটিভ দলের ২৭৭ জন পক্ষে ভোট দিতে পারেন। ফলাফল নির্ধারণে তাই খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে মনস্থির করতে পারেন নি এমন ২৭ কমন্স সদস্যের ভোট।
ইতিপূর্বে, ব্রেক্সিটবিরোধীদের উদ্যোগে পাস হওয়া এক আইনে (বেন অ্যাক্ট নামে পরিচিত) বলা আছে, ১৯ অক্টোবরের (শনিবার) মধ্যে কোনো চুক্তির পক্ষে বা চুক্তি ছাড়াই ব্রেক্সিট কার্যকরে পার্লামেন্টের অনুমোদন নিতে ব্যর্থ হলে সরকারকে অবশ্যই বিচ্ছেদের দিনক্ষণ ২০২০ সালের ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত পিছিয়ে দেওয়ার আবেদন করতে হবে। কিন্তু কট্টর ব্রেক্সিটপন্থী প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন যেকোনো মূল্যে ৩১ অক্টোবর ব্রেক্সিট কার্যকর করতে চেয়েছিলেন।
পার্লামেন্টের ভোটাভুটির আগে হাজার হাজার বিক্ষোভকারি সমবেত হন দেশটির পার্লামেন্ট স্কয়ার ওয়েস্টমিনিস্টার অ্যাবিতে। তারা সকলেই ব্রেক্সিট ঘোষণার পূর্বে চূরান্ত আরেক গণভোটের দাবি করেছেন। তাদের বক্তব্য, দেশ ও জনগণের স্বার্থবিষয়ক যে কোন সিদ্ধান্তে চূড়ান্ত রায় দেয়ার অধিকার কেবল জনগণের। এই দাবির সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করে দেশটির শীর্ষ গণমাধ্যম দ্য ইন্ডিপেন্ডেন্ট। তারা পার্লামেন্ট সদস্যদের প্রতি লেখা এক খোলাচিঠিতে জনরায় পুনঃবিবেচনার লক্ষ্যে আরেকটি গনভোট অনুষ্ঠানের আহবান জানাবে। সম্পাদনা : ইকবাল খান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]