• প্রচ্ছদ » সর্বশেষ » ঢাবিতে ছাত্রদলের উপর ছাত্রলীগ ও মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের হামলা, আহত ৫


ঢাবিতে ছাত্রদলের উপর ছাত্রলীগ ও মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের হামলা, আহত ৫

আমাদের নতুন সময় : 21/10/2019

আসিফ কাজল : ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) মধুর ক্যান্টিনে ছাত্রদলের ওপর মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ ও ছাত্রলীগ যৌথ হামলা চালিয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ছাত্রদলের পাঁচ নেতাকর্মী আহত হয়েছেন। গতকাল রোববার দুপুর সোয়া ১২টার দিকে এ হামলা চালানো হয়। আহতরা হলেন মামুন খান, শাহজাহান শাওন, মাহফুজ চৌধুরী, হাসান তারেক ও নুর আলম ইমন। এসময় সাবেক ছাত্রদল কেন্দ্রীয় নেতা মামুন খানকে গুরুতর আহত অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এর আগে বেলা ১১টার দিকে টিএসসির সাংবাদিক সমিতি কার্যালয়ে ছাত্রদলের নবনির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামলের ফেসবুক আইডি বিতর্কে সংবাদ সম্মেলন করেন। সম্মেলনে বিতর্কিত ‘বায়ো’র সঙ্গে তার কোনো রকম সংশিষ্টতা নেই বলে তিনি জানান। তার নাম দিয়ে ব্যবহৃত সকল ফেসবুক একাউন্ট ভুয়া বলেও দাবি করেন তিনি। সংবাদ সম্মেলন শেষে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ ছাত্রদল নেতাকর্মীদের তাড়া করেন বলে সংগঠনের নেতাকর্মীরা অভিযোগ করেন। এর আধা ঘণ্টা পর ছাত্রদলের একটি অংশ মধুর ক্যান্টিনে আসে। তার পর পরই এ হামলার ঘটনা ঘটে।
অপরদিকে এ হামলার পাঁচ মিনিট আগে দুপুর ১২টার দিকে মধুর ক্যান্টিনে সংবাদ সম্মেলন করে ছাত্রদলকে ঢাবি ক্যাম্পাসে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করেন মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের নেতারা। ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের ফেসবুক আইডি থেকে মুক্তিযুদ্ধবিরোধী কর্মকা- চালানো হচ্ছে এমন অভিযোগ আনা হয় সংবাদ সম্মেলনে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী মানসুরা আলম বলেন, দুপুরে মধুর ক্যান্টিনে ছাত্রদলের কর্মীরা চেয়ার-টেবিল না পেয়ে ফ্লোরে বসেন। এ সময় মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের কেন্দ্রীয় সভাপতি আমিনুল ইসলাম বুলবুল ও সাধারণ সম্পাদক আল মামুনসহ ছাত্রলীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা আমাদের ওপর হামলা চালান। ঢাবির অপর শিক্ষার্থী কানেতা ইয়া লাম লাম বলেন, আমাকে ও মানসুরা আলমকে ছাত্রলীগ নেতারা শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করেছেন। হামলার ঘটনায় মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের সাধারণ সম্পাদক আল মামুন কথা বলেননি। ঢাকা বিশ^বিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ সভাপতি সঞ্জিত চন্দ্র দাস বলেন, হামলার বিষয়ে আমি অবগত নয়। এ ঘটনা সম্পর্কে ঢাবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান বলেন, এটি একটি অনাকাঙ্খিত ঘটনা। একজন ছাত্র কখনোই অন্য ছাত্রের শরীরে আঘাত দিতে পারেন না। সম্পাদনা : ওমর ফারুক, ইকবাল




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]