• প্রচ্ছদ » সর্বশেষ » মার্কিন ফুটবল কোচ কেনান ক্লাসে বন্দুক নিয়ে ঢুকে পরা স্কুলছাত্র দিয়াজকে নাটকীয়ভাবে নিরস্ত্র করলেন


মার্কিন ফুটবল কোচ কেনান ক্লাসে বন্দুক নিয়ে ঢুকে পরা স্কুলছাত্র দিয়াজকে নাটকীয়ভাবে নিরস্ত্র করলেন

আমাদের নতুন সময় : 21/10/2019

রাশিদ রিয়াজ : ফুটবল কোচ কেনান লো অরিগন পার্করোজ হাইস্কুলের সব ছাত্রদের কাছ থেকে গুরু ভক্তি পেয়ে থাকেন। এবং এই গুরু ভক্তি কাজে লাগিয়েই ক্লাসে বন্দুক নিয়ে ঢুকে পড়া দিয়াজকে ডেকে আনলে কোচকে জড়িয়ে ধরে ছাত্রটি। এসময় কৌশলে তার হাত থেকে বন্দুকটি কেড়ে নিলে স্কুলের আরেক স্টাফ তা সরিয়ে নেন। দিয়াজ নিজেকে হত্যা করার আগে ক্লাসে গুলি বর্ষণের জন্যে লোড করা সটগানটি নিয়ে ক্লাসে ঢুকে পড়ে। এ খবর ছড়িয়ে পড়লে স্কুল কোচ কেনান অসীম সাহসীকতার সাথে তাকে ক্লাস থেকে বের করে আনেন। কোচকে দেখে স্কুল ছাত্র দিয়াজ ক্লাসের বাইরে এসে তাকে জড়িয়ে ধরে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন। এসময় দিয়াজকে সান্তনা দিতে থাকেন কেনান। গত মে মাসে ঘটে এ ঘটনাটি। আর গত বৃহস্পতিবার আদালত দিয়াজকে ৩৬ মাসের সংশোধনমূলক শাস্তি ও মানসিক চিকিৎসার নির্দেশ দিয়েছে। ডেইলি মেইল/মিরর/দি সান
২৭ বছরের কোচ কেনান তার ১৯ বছরের ছাত্র দিয়াজ যে মানসিক রোগে ভুগছিলেন তা বুঝতে পেরেছিলেন। কারণ দিন কয়েক আগেই দিয়াজের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হয়েছিল। মায়ের সামনে নয় স্কুলে এসে আত্মহননের পরিকল্পনা করে দিয়াজ। এ ঘটনার পর পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নেয়।
এ ঘটনার পর কেনান সাংবাদিকদের বলেন, দিয়াজের এ অবস্থা দেখে ঠিক থাকতে পারিনি। চোখের সামনে একজন ছাত্র এভাবে আত্মহত্যা করবে অথচ শিক্ষক হয়ে তা কিভাবে হতে দেয়া যায়। ওকে বলেছি বেঁচে থাকাটাও একটা মূল্যবান কিছু। এসময় আমরা দুজনেই আবেগে তাড়িত হয়ে পড়ি। ওকে বলেছি, তুমি যখন তরুণ তখন এমন কিছু করে ফেল যা তুমি বুঝতে পার না কিন্তু যখন বুঝতে পারে তখন তো সব কিছু শেষ হয়ে যায়। আমি ওর মুখের দিকে তাকাই। তার চোখের দিকে। তারপর হাতে বন্দুকটি দেখি সত্যিকারের বন্দুক। কৌশলে ওর বন্দুকের ওপর হাত রাখি। বুকে আরেক হাত দিয়ে চেপে ধরি। তারপর বন্দুকটি সরিয়ে নেই। এবং অন্য ছাত্ররা তখন দৌড়ে ক্লাসরুম থেকে পালাতে শুরু করে। এবং আমি এ সিদ্ধান্ত নেয়ার আগে বিন্দুমাত্র কারো কথা শুনিনি। আসলে তখন চিন্তা করার সময়টুকু পর্যন্ত ছিল না। খোদাকে ধন্যবাদ। সবকিছু ভালভাবেই মিটে গেছে।




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]