জাপানের সম্রাটের অভিষেক আজ

আমাদের নতুন সময় : 22/10/2019


দেবদুলাল মুন্না : আজ জাপানের সম্রাট হিসেবে আনুষ্ঠানিক অভিষেক হচ্ছে নারুহিতোর। গত ১ মে তিনি দায়িত্ব নিলেও আজ হচ্ছে মুল অনুষ্ঠান। বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সরকার ও রাষ্ট্রপ্রধান এবং অন্যান্য প্রতিনিধিদের উপস্থিতিতে স্মারক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে সম্রাটের সিংহাসন আরোহণ পর্ব শেষ হবে। মুল অনুষ্ঠান হবে চার ধাপে। এর আগে জাপানের ২০০ বছরের ইতিহাসে প্রথম স্বইচ্ছায় সিংহাসন ছাড়েন সম্রাট আকিহিতো গত ২৯ এপ্রিল। এরপর ১লা মে তার পুত্র যুবরাজ নারুহিতো দায়িত্ব নেন। এ উপলক্ষে বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতিও সেই অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছেন। এর আগে অবশ্য ১৮১৭ সালে এক সম্রাট ছেড়েছিলেন।
জাপানে যদিও সম্রাট কোন রাজনৈতিক ক্ষমতা নেই, কিন্তু তাকে জাতীয় প্রতীক হিসাবে দেখা হয়। ৮৫ বছর বয়সী সম্রাট আকিহিতো ২০১৬ সালে ঘোষণা দিয়েছিলেন, বয়সের কারণে তার ভয় হচ্ছে যে, তিনি ঠিকভাবে তার দায়িত্ব পালন করতে পারবেন না। জনমত জরিপে দেখা যায, স্বাস্থ্যের কারণে সিংহাসন ছাড়তে জাপান সম্রাট ইচ্ছাকে সমর্থন করেছেন বেশিরভাগ জাপানি। পরে দেশটির সংসদ একটি আইন পাস করে, যাতে তিনি সিংহাসন ত্যাগ করতে পারেন। তার স্থলাভিষিক্ত হচ্ছেন তার ৫৯ বছর বয়সী যুবরাজ নারুহিতো।

জাপানি ভাষায় ‘সোকুই নো রেই’ নামে পরিচিত এই অনুষ্ঠানটি জাপানে নতুন সম্রাটের আনুষ্ঠানিক দায়িত্ব গ্রহণের সঙ্গে সম্পর্কিত। দূর অতীতকাল থেকেই জাঁকজমকের সঙ্গে এ অনুষ্ঠান হয়ে আসছে। এবার বিশ্বের ১৯০টির মতো দেশের প্রতিনিধিরা এ অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন । বিদেশি অতিথিদের অনেকেই এরই মধ্যে টোকিও এসে পৌঁছেছেন। মূল অনুষ্ঠান টোকিওর কেন্দ্রস্থলে অবস্থিতসম্রাটের প্রাসাদে অনুষ্ঠিত হবে। সম্রাট নারুহিতো ও স¤্রাজ্ঞী মাসাকো পূর্ণাঙ্গ রাজকীয় সাজপোশাক পরিধান করে সেখানে অপেক্ষমাণ অতিথিদের সামনে উপস্থিত হবেন। শুরুতে সম্রাট নিজেকে সিংহাসনের উত্তরাধিকারী ঘোষণা করে একটি বিবৃতি পাঠ করে শোনাবেন। এরপর প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে একটি অভিনন্দন বার্তা পাঠ করবেন। অতিথিরা এরপর সমবেতভাবে ‘বানজাই’ ধ্বনি তুলে সম্রাট র সুস্বাস্থ্য ও সাফল্য

কামনা করে জাপানি পানীয় ‘সাকে’ পান করবেন। এর ঠিক পরপর সম্রাট ও স¤্রাজ্ঞী সেই কক্ষ ত্যাগ করবেন।
বিদেশি অতিথিদের মধ্যে থাকছেন ব্রিটেনের যুবরাজ চার্লস, বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি মো.আব্দুল হমিদ, চীনের ভাইস প্রেসিডেন্ট ওয়াং চি-শান এবং দক্ষিণ কোরিয়ার প্রধানমন্ত্রী লি নাক-ইয়েওন। যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ থেকে থাকছেন পরিবহন মন্ত্রী এলেইন চাও। সম্রাট নারুহিতোর সিংহাসন আরোহণের সঙ্গে সম্পর্কিত বিভিন্ন অনুষ্ঠানের জন্য মোট খরচের পরিমাণ নির্ধারণ করা হয়েছে আনুমানিক এক হাজার ছয় শ কোটি ইয়েন। অভিষেকের সঙ্গে সম্পর্কিত চারটি অনুষ্ঠানের মধ্যে আছেসম্রাটের প্রাসাদে আয়োজিত সিংহাসন আরোহণ সংক্রান্ত ঘোষণা, আনুষ্ঠানিক অভিষেকের পর মোটরগাড়ি শোভাযাত্রা, সম্রাটের প্রাসাদে দেওয়া ভোজসভা এবং প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া ভোজসভা। তবে গত সপ্তাহে জাপানের ওপর আঘাত হানা সামুদ্রিক ঝড় হাগিবিসের কারণে হওয়া ক্ষয়ক্ষতির বিষয়টি বিবেচনায় রেখে মোটরগাড়ি শোভাযাত্রার অনুষ্ঠানটি নভেম্বর মাসের ১০ তারিখে পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে। সম্পাদনা : ইকবাল খান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]