নাসার হাবল টেলিস্কোপে ধরা পড়ল রহস্যজনক ফ্লাইং সসার

আমাদের নতুন সময় : 22/10/2019

রাশিদ রিয়াজ : সাইন্স ফিকশন থেকে শুরু করে চলচ্চিত্রে এ্যালিয়েন কিংবা তাদের উড়ন্ত বাহন নিয়ে কম কল্পকাহিনী প্রচার হয়নি। অনেক বিতর্ক আর সন্দেহের মাঝেই এবার মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থার শক্তিশালী হাবল টেলিস্কোপে পর্যন্ত ধরা পড়েছে ফ্লাইং সসার। চলতি সপ্তাহেই ইউটিউব চ্যানেল সিকিউরটিম টেন’এর টিলার গ্লোকনার টেলিস্কোপে সসার যাওয়ার দৃশ্যটি উপস্থাপন করেন। ডেইলি স্টার ইউকে
টিলার তার ভিডিওতে দেখান পৃথিবীর উপর দিয়ে উড়ে যাচ্ছে এক উজ্জ্বল ছুটন্ত আলো। হাবল টেলিস্কোপে জুম করে টিলার বস্তুটিকে এক আকাশযান হিসেবে দেখতে পান বলে দাবি করছেন। এবং এটি ফ্লাইং সসারের মতই বলেও তার দাবি। ইউটিউব চ্যানেলে টিলার ওই ভিডিওটি দেখান এবং বলেন, দূরত্ব বিবেচনা করলে এটিকে একটি আকাশযানের মত এবং তাতে কেউ এ্যালিয়েনের মত বসে আসে বলে মনে হয়। টেলিস্কোপে দেখলে এটিকে উড়ন্ত কোনো আকাশযানের মাথার মতই স্পষ্ট মনে হয় এবং দেখে মনে হয় কোনো কিছু ওই স্থানটি অতিক্রম করছে।
গত ১৯ অক্টোবর টিলার এ ভিডিওটি তার ইউটিউব চ্যানেলে পোস্ট করার পর ৮০ হাজার মানুষ তা দেখে। টিলারের ধারণা পৃথিবীর চেয়ে মহাকাশে এধরনের ফ্লাইং সসারের সংখ্যা আরো বেশি রয়েছে। এটি কোনো উপগ্রহ কি না এমন এক প্রশ্নের উত্তরে টিলার জানান, হতে পারে কিন্তু এর আগে এধরনের আকারের কোনো উপগ্রহ তার চোখে পড়েনি। টেক্সাসের আকাশে উড়ে যাওয়ার সময় এটি হাবল টেলিস্কোপে ধরা পড়ে। শতাধিক মন্তব্য পড়ে টিলারের এ পোস্টটিতে। এক ব্যক্তি মন্তব্য করেন, এটি হতে পারে মানুষের তৈরি কোনো আকাশযান। আরেকজন মন্তব্য করেন এযাবৎ যত কল্পকাহিনীর ইউএফও বা পরিচিতিবিহীন উড়ন্ত বস্তু দেখেছি তার মধ্যে এটিই স্পষ্ট ও সেরা।




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]