বাবার ছোড়া এসিডে ঝলসে গেছে মেয়ে ও তার মা

আমাদের নতুন সময় : 22/10/2019

আসাদুজ্জামান : দগ্ধ মা ও মেয়েকে উন্নত চিকিৎসার জন্য সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। গত সোমবার মধ্যরাতে আশাশুনি উপজেলার চাপড়া গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে। আহতরা হলেন, আশাশুনি উপজেলার বুধহাটা ইউনিয়নের চাপড়া গ্রামের একরামুল কাদিরের মেয়ে ফাতেমা সুলতানা (২৯) ও তার মেয়ে জাকিয়া সুলতানা (২)। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আহত ফাতেমা জানান, ছয় বছর আগে নড়াইল জেলার শাহাজান মোল্যার সাথে তার বিয়ে হয়। বিয়ের পর তার স্বামী তাকে যৌতুকের জন্য প্রায়ই নির্যাতন করতো। তার স্বামী মাদকাসক্ত হওয়ায় এক বছর আগে তাদের তালাক হয়। এরপর থেকে ফাতেমা বাবার বাড়িতে থাকতো। সোমবার গভীর রাতে তার সাবেক স্বামী শাহাজান মোল্যা বাড়ির জানালার কাছে এসে তাকে ডাকে। জানালা খোলার সঙ্গে সঙ্গে শাহাজান এসিড ছুড়ে পালিয়ে যায়। এসিড ছুড়ার সঙ্গে সঙ্গে তার সারা শরীর ও তার পাশে থাকা দুই বছরের মেয়ে ঝলসে যায়। আশাশুনি থানার ওসি আব্দুস সালাম জানান, ঘটনাটি শোনার সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে আহতদের উদ্ধার করে দ্রুত উন্নত চিকিৎসার জন্য সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়। তিনি আরো জানান, এ ঘটনায় ফাতেমার সাবেক স্বামী শাহাজান মোল্যাকে গ্রেফতারে পুলিশ অভিযান অব্যাহত রয়েছে। তবে, এ ঘটনায় থানায় গতকাল মঙ্গলবার বিকাল পর্যন্ত কেউ কোনো অভিযোগ দেননি বলে জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা। সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. ইকবাল মাহমুদ জানান, শিশুটির থেকে তার মায়ের অবস্থা বেশি আশঙ্কাজনক। তার মুখ, চোখ ও বুক থেকে পেটসহ শরীরের বিভিন্ন অংশ ঝলসে গেছে। জরুরি ভিত্তিতে চিকিৎসা চলছে। তিনি আরও বলেন, ফাতেমার একটি চোখ নষ্ট হয়ে যাওয়ার উপক্রম হয়েছে। সম্পদনা : মুরাদ হাসান, ওমর ফারুক




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]