ক্রিকেটারদের আন্দোলনে বিস্মিত প্রধানমন্ত্রী

আমাদের নতুন সময় : 23/10/2019

এল আর বাদল : সাকিব আল হাসান, তামিম ইকবাল ও মুশফিকদের ১৩টি দাবিকে কেন্দ্র করে ক্রিকেটে সৃষ্ট অচলাবস্থা কাটিয়ে উঠতে শেষ পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দ্বারস্থ হলেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।
গতকাল বুধবার দুপুরে গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করে বিসিবি কার্যালয়ে এসে পাপন সাংবাদিকদের বললেন, ভারত সফরের আগে এই অচলাবস্থার নিরসন দেখতে চান প্রধানমন্ত্রী। তিনি আমার কাছে জানতে চেয়েছেন, আমার দরজা সব সময় খেলোয়াড়দের জন্য খোলা, তবুও কেন অবহিত না করে তারা ধর্মঘটে গেলেন। পরে আমার কাছ থেকে সবকিছু শুনে বিস্ময় প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী। আলোচনার জন্য খেলোয়াড়দের বিসিবিতে ডাকার কথা বলেছেন তিনি। আমরা সে অনুযায়ী কাজ করবো। বিসিবি সভাপতি বলেন, আমরা ক্রিকেটারদের দাবি-দাওয়া মেনে নিতে প্রস্তুত। সাকিব-তামিমদের সব দাবিই অর্থ সংক্রান্ত। ওদের দাবিগুলো মেনে নেওয়ার মতো আর্থিক সঙ্গতি বিসিবির রয়েছে।
প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশের পর গতকাল রাতেই ক্রিকেটারদের সঙ্গে বৈঠকে বসেন বোর্ডের কর্মকর্তারা। গত সোমবার ১১টি দাবির কথা জানালেও গতকাল সাকিব-তামিমরা আরও দুটি নতুন দাবিসহ ১৩টি দাবি নিয়ে বিসিবির বৈঠকে বসে। নতুন দাবির মধ্যে বিসিবির আয়ের অর্থের ভাগ দিতে হবে এবং পুরুষ ক্রিকেটারদের সমান দাবি মহিলা ক্রিকেটারদের বেলায়ও প্রযোজ্য।
গত সোমবার বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের ক্রিকেট ব্যবস্থাপনার প্রতি অনাস্থা প্রকাশ করে ১১ দফা দাবি জানিয়েছিলেন ক্রিকেটাররা। এসব দাবি না মানা পর্যন্ত সবধরনের ক্রিকেট থেকে বিরতিতে থাকবেন জাতীয় দল ও জাতীয় দলের বাইরে থাকা সকল ক্রিকেটাররা।
ক্রিকেটারদের দাবির প্রেক্ষিতে গত মঙ্গলবার এক প্রেস ব্রিফিংয়ে হাজির হয়ে বিসিবি সভাপতি বলেন, ক্রিকেটারদের দাবিগুলো যৌক্তিক হলেও তারা বিসিবির কাছে না এসে মিডিয়ার কাছে প্রকাশ করা মোটেও যৌক্তিক ছিলো না। তার মতে এসব করা হচ্ছে দেশের ক্রিকেটকে ধ্বংস করার উদ্দেশ্যে। সম্পাদনা : রমাপ্রসাদ বাবু




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]