জেপি মরগ্যানের কর্মকর্তাদের সঙ্গে মোদীর বৈঠক, ছিলেন টনি বে¬য়ার, হেনরি কিসিঞ্জার

আমাদের নতুন সময় : 24/10/2019


নূর মাজিদ : বাণিজ্যিক ব্যাংকের হয়ে সাবেক কূটনীতিবিদ ও রাষ্ট্রনায়কদের দূতিয়ালি নতুন কিছু নয়। নিজেদের পূর্ব দাপ্তরিক অভিজ্ঞতার কারণেই তাদের বাজারদর আলাদা। অন্তুত, ব্যাংকিংখাত এভাবেই দেখে। সাম্প্রতিক সময়ে এমনই এক পদক্ষেপের অংশ হিসেবে মার্কিন বিনিয়োগ ব্যাংক জেপি মরগ্যানের ইন্টারন্যাশনাল কাউন্সিলের শীর্ষ প্রতিনিধিরা ভারত সফর করছেন। হেভিওয়েট এসব প্রতিনিধিদের মধ্যে আছেন সাবেক ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ও ইরাক যুদ্ধের অন্যতম সমর্থক টনি বে¬য়ার, অপর সাবেক মার্কিন প্রতিরক্ষা ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী রবার্ট গেটস ও কন্ডোলিৎযা রাইস, যুক্তরাষ্ট্রের বহুল আলোচিত-সমালোচিত অপর সাবেক কূটনৈতিক ও জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা হেনরি কিসিঞ্জার, অস্ট্রেলিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী জন হাওয়ার্ড প্রমুখ। মঙ্গলবার তাদের সঙ্গেই এক বৈঠকে অংশ নেন ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। খবর : ইকোনমিক টাইমস, এনডিটিভি।
এদিন বৈঠক পরবর্তী এক টুইট বার্তায় জেপি মরগ্যানের বিশেষ দূতদের সঙ্গে তার সাক্ষাতের ছবিসহ একটি টুইট প্রকাশ করেন তিনি। টুইট বার্তায় মোদী জানান, ‘‘জেপি মরগ্যানের আন্তর্জাতিক পরিষদের সঙ্গে খুব বিস্তৃত ও ফলপ্রসূ আলোচনা করেছি। সাবেক এসব শীর্ষ নীতিনির্ধারক, রাষ্ট্রনায়ক এখন ব্যাংকিং ও বিনিয়োগ শিল্পে উদ্ভাবক হিসেবে কাজ করছেন, নেতৃত্ব দিচ্ছেন পরিচালনায়। আমি তাদের কাছে স্বাস্থ্য ও শিক্ষার উন্নয়নে সাম্প্রতিক সময়ে ভারত যে অর্জনগুলো লাভ করেছে তা তুলে ধরেছি। আরো তুলে ধরেছি ২০২৪-২৫ সাল নাগাদ ভারতকে ৫ লাখ কোটি ডলারের অর্থনীতিতে পরিণত করতে আমার সরকারের গৃহীত পদক্ষেপ ও দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা।’’
তবে মোদীকে সবচাইতে বেশি অভিভূত করেছে টনি বে¬য়ারের ব্যক্তিত্ব। সেই বে¬য়ার, জুনিয়র বুশের সঙ্গে যাকে ইরাকের কসাই উপাধি দিয়েছিলো যুদ্ধবিরোধী আন্দোলনগুলো। আলোচনায় উৎফুল¬ মোদী জানান, ‘‘যুক্তরাজ্যের সাবেক প্রধানমন্ত্রী টনি বে¬য়ারের সঙ্গে খুব ঘনিষ্ঠ আলোচনা হয়েছে আমার। আমি জানতাম, তিনি নিজ জাতির জন্য বহুকিছুই করেছেন, রেখে গেছেন বহু সম্ভাবনা। আমাদের মাঝে বর্তমান বিশ্বের অনেক জটিল সমস্যা নিয়ে আলোচনা হয়েছে। ড. হেনরি কিসিঞ্জারের সঙ্গেও সাক্ষাৎ করে খুব খুশি হয়েছি। তিনি আন্তর্জাতিক কূটনীতি ও রাজনীতিতে নতুন অনেক কিছু যোগ করেছেন।’’
উলে¬খ্য, ২০০৭ সালে শেষবার ভারত সফর করে জেপি মরগ্যানের ইন্টারন্যাশনাল কাউন্সিল। এর দীর্ঘ এক যুগ পরে কাউন্সিলের সদস্যরা ভারতে এসেছেন। সম্পাদনা : ইকবাল খান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]