• প্রচ্ছদ » » তদন্তে বিপ্লব চন্দ্র শুভ পরিষ্কারভাবে নির্দোষ হওয়ার পরও শুধু হিন্দু হওয়ার অপরাধে তৌহিদী জনতার চাপে তাকে জেল খাটতে হচ্ছে


তদন্তে বিপ্লব চন্দ্র শুভ পরিষ্কারভাবে নির্দোষ হওয়ার পরও শুধু হিন্দু হওয়ার অপরাধে তৌহিদী জনতার চাপে তাকে জেল খাটতে হচ্ছে

আমাদের নতুন সময় : 24/10/2019

আজম খান

পুলিশি তদন্তে বের হয়ে এসেছিলো বিপ্লব চন্দ্র শুভ নির্দোষ। মূল অপরাধী মো. শরীফ এবং মো. ইমন। তারপরও বিপ্লব চন্দ্র শুভকে জেলে পাঠানো হয়েছে। কেন পাঠানো হয়েছে সেটাও আমরা জানি। পাঠানো হয়েছে তৌহিদি জনতাকে ঠাÐা রাখার জন্য। ন্যায়পরায়ণ বিচারের অন্যতম মূলনীতি, দশজন অপরাধী ছাড়া পেয়ে যাক তবু কোনোভাবে যেন একজন নিরপরাধী সাজা না পায়। অপরাধ না করেও কাউকে সাজা দেয়ার মতো অপরাধ দুনিয়াতে আর কিছু হতে পারে না। এই অপরাধে বাংলাদেশ রাষ্ট্র এবং সংখ্যাগুরু মুসলমান জড়িত। কেউ কেউ বলবেন, কারাগারই বর্তমানে বিপ্লব চন্দ্র শুভর জন্য নিরাপদ। কিন্তু এই যুক্তি ধোপে টিকে না। কারণ কাউকে নিরাপত্তা দিতে হলে এজন্য পুলিশসহ অনেক আইন রক্ষাকারী বাহিনী, এজেন্সির সেফ হাউজ আছে। তদুপরি, কোনো রাষ্ট্র যখন নাগরিককে নিরাপত্তা দিতে কারাগারে নেয় সেই রাষ্ট্র আসলে উন্মত্ততার কাছে অসহায়। প্রমাণ হয় সেই রাষ্ট্র ব্যর্থ রাষ্ট্র হবার পথে আছে। উন্নত হবার পথে নয়।
এটা এখন পরিষ্কার বিপ্লব চন্দ্র শুভর একমাত্র অপরাধ সে হিন্দু। শুধু হিন্দু হওয়ার অপরাধে তদন্তে সে পরিষ্কারভাবে নির্দোষ হওয়ার পরও তৌহিদী জনতার সংখ্যার চাপে তাকে জেল খাটতে হচ্ছে। ইতিহাসে বিপ্লব চন্দ্রের নাম লেখা হয়ে গেলো। সেই সঙ্গে পরিষ্কার হয়ে গেলো এই সময়ের বাঙালি মুসলমানের ভিন্ন ধর্ম, বিশ্বাসের প্রতি গণফ্যাসিবাদী, নিপীড়নবাদী অবস্থানও। বিবেকবান মানুষের জন্য এটা এক লজ্জার ইতিহাস। ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]