• প্রচ্ছদ » » যতীন সরকার বললেন, উপযুক্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকেই এমপিওভুক্ত করা উচিত এমপিওভুক্ত শিক্ষকদের বেতন বাড়াতে হবে, বললেন সৈয়দ মনজুরুল ইসলাম


যতীন সরকার বললেন, উপযুক্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকেই এমপিওভুক্ত করা উচিত এমপিওভুক্ত শিক্ষকদের বেতন বাড়াতে হবে, বললেন সৈয়দ মনজুরুল ইসলাম

আমাদের নতুন সময় : 24/10/2019

আমিরুল ইসলাম : দুই হাজার সাতশ ত্রিশ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে এমপিওভুক্তির ঘোষণা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। একসঙ্গে এতোগুলো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে এমপিওভুক্তির বিষয়টিকে কীভাবে দেখছেন জানতে চাইলে শিক্ষাবিদ যতীন সরকার বলেন, যে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর সত্যি সত্যি এমপিওভুক্ত হওয়ার মতো যোগ্যতা রয়েছে, এ রকম সবগুলো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকেই এমপিওভুক্ত করা উচিত। যে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো এমপিওভুক্ত করার উপযোগী নয়, সেগুলোকেও উপযোগী করে এমপিওভুক্ত করা উচিত। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোকে এমপিওভুক্ত করার বিষয়টি সমর্থনযোগ্য এবং অভিনন্দনযোগ্য।
শিক্ষাবিদ সৈয়দ মনজুরুল ইসলাম বলেন, এমপিওভুক্তিতে সাধারণত লাভ হবে শিক্ষকদের। আমাদের প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের বেতন-ভাতা অকল্পনীয়ভাবে কম। তারা অমানবিক জীবনযাপন করেন। কাজেই এমপিওভুক্তি করার ফলে প্রথম লাভটা শিক্ষদেরই হবে। আমরা শিক্ষকদের মানুষ গড়ার কারিগর নাম দিয়েছি। তাদের আমরা একটা সচিবের গাড়িচালক থেকেও কম বেতন দিচ্ছি। সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে সরকারি করা উচিত। শিক্ষার ক্ষেত্রে প্রাইভেটাইজেশন অত্যন্ত ভয়ানক হচ্ছে, বিশেষ করে নি¤œ পর্যায়ে। সব প্রাথমিক বিদ্যালয় সরকারি করা উচিত। মাধ্যমিক বিদ্যালয় যতোটা সম্ভব সরকারিকরণ করা উচিত। তাহলে বিদ্যালয়গুলোতে নিয়ন্ত্রণ থাকে এবং পাঠ্যক্রমে একটা স্বস্তির বিষয় থাকে, শিক্ষার্থীদের উপর চাপটা কম পড়ে। এটা সরকারের একটা সাংবিধানিক দায়িত্ব। এমপিওভুক্তির জন্য যখন শিক্ষকরা অনশন করেন তখন মানবিকতার বিষয়টি সবচেয়ে বড় হয়ে দাঁড়ায়। কিছু নিয়মে ব্যত্যয় ঘটার বিষয়টিকে এখানে বড় করে দেখার কিছু নেই। যেখানে ক্যাসিনো বাণিজ্য করে কোটি কোটি টাকা বিদেশে নিয়ে যায়, সেখানে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোকে এমপিওভুক্ত করা হলে কোনো ক্ষতি হবে না। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোকে এমপিওভুক্তিকরণের বিষয়টি সঠিক। এখানে কিছু অনিয়ম হয় ছোটখাটো, এগুলো নিয়ে মাথা ঘামানোর তেমন কিছু নেই। একজন প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক এতোবড় দায়িত্ব পালন করেও তৃতীয় চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী হিসেবে বেতন পান। শিক্ষকদের প্রতি আমাদের একটা দায়িত্ববোধ আছে। এমপিওভুক্ত সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষকদের বেতন বাড়াতে হবে এবং তাদের জন্য আলাদা বেতন কাঠামো করতে হবে। শিক্ষকদের শহীদ মিনারে এসে অনশন করার দৃশ্য আমরা কখনো দেখতে চাই না।




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]