বরিসের সইছাড়া চিঠির অনুরোধেই ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত ব্রেক্সিট সময়সীমা বাড়ালো ইইউ

আমাদের নতুন সময় : 29/10/2019


আসিফুজ্জামান পৃথিল : এই বৃহস্পতিবার হচ্ছেনা বহুল প্রতিক্ষিত ব্রেক্সিট। ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের বারবার প্রতিশ্রুতির পরও ৩ মাসের জন্য পিছিয়ে যাচ্ছে ব্রেক্সিট। ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত যুক্তরাজ্যকে সময় দিয়েছে ইইউ। এই নিয়ে তৃতীয়বারের মতো বাড়লো এই সময়সীমা। বিবিসি, সিএনএন।
নর্দমায় পরে মরতে কিংবা ব্রেক্সিটের জন্য শহীদ হতে চেয়েছিলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী। কিন্তু তবুও ব্রেক্সিটের সময়সীমা বাড়াতে চাননি। এরজন্য সম্ভাব্য সব পথেই চেষ্টা করে গেছেন বরিস। এমনকি রানিকে ‘মিথ্যে বুঝিয়ে’ পার্লামেন্ট পর্যন্ত স্থগিত করেছেন। কিন্তু আইনি লড়াইয়ে টেকেনি কিছুই। বাধ্য হয়ে ইইউকে লিখেছিলেন যেনো ব্রেক্সিট সময়সীমা বাড়ানো হয়। মজার বিষয় হলো এই চিঠিতে স্বাক্ষর পর্যন্ত করেননি তিনি। অবশেষে ইইউ ৩ মাসের জন্য সময়সীমা বাড়ালো।
এমন সময় এই ঘোষণা এলো যখন ১২ ডিসেম্বর একটি আগাম নির্বাচনের উদ্দেম্যে ভোটাভুটির প্রস্তুতি নিচ্ছেন ব্রিটিশ এমপিরা। বরিসই এই তারিখ প্রস্তাব করেছিলেন। এসএনপি এবং লিবারেল ডেমোক্রেটরা ৯ ডিসেম্বর নির্বাচনের প্রস্তাব দিয়েছে। তবে আসলেই নির্বাচন হবে কিনা সেই সিদ্ধান্ত নেবে হাউজ অব কমন্স।
৩১ অক্টোবরই যেনো যুক্তরাজ্য ইইউ ত্যাগ করতে পারে, সেজন্য সর্বোচ্চ চেষ্টা করেছেন বরিস জনসন। এমনকি নিজের পরিকল্পনা অনুযায়ী ইইউ এর সঙ্গে একটি চুক্তিও করেছিলেন। কিন্তু থেরেসা মের সম্পাদিত চুক্তির মতো এই চুক্তিও গ্রহণ করেননি এমপিরা। এর আগে ব্রেক্সিটের নিয়ন্ত্রণ সম্পূর্ণভাবে নিয়ে নেয় পার্লামেন্ট। ফলে ব্রেক্সিট পেছানো ছাড়া আর কোনও উপায় ছিলো না বরিসের। সম্পাদনা : ইকবাল খান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]