• প্রচ্ছদ » আমাদের খেলা » টি-টোয়েন্টি বিশ^কাপ খেলতেই ভারত সফরের আগে আইসিসির নিষেধাজ্ঞা চেয়েছেন সাকিব


টি-টোয়েন্টি বিশ^কাপ খেলতেই ভারত সফরের আগে আইসিসির নিষেধাজ্ঞা চেয়েছেন সাকিব

আমাদের নতুন সময় : 01/11/2019

আক্তারুজ্জামান : জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক টেস্ট ও টি-২০ অধিনায়ক সাকিব আল হাসানের নিষেধাজ্ঞা নতুন কোনো খবর নয়। তবে গত বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের অপারেশন্স কমিটির চেয়ারম্যান আকরাম খানের একটি বক্তব্য নতুনভাবে ভাবাতে শুরু করেছে ক্রিকেট ভক্তদের। আকরাম খান বলেছিলেন, সাকিবের সিদ্ধান্তেই ভারত সফরের আগে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে আইসিসি। এখন ভক্তরা ভাবছেন সাকিব কেন এটা করলেন। জানা যায়, ভারতে গিয়ে শাস্তির সংবাদ পেলে দেশের ভাবমুর্তি গভীর সংকটে পড়তো। তাছাড়া ভারত সফরের পরে যদি শাস্তি হতো তাহলে আরও বড় ক্ষতি হতো। কেননা ভারত সফর শেষ হবে নভেম্বরের শেষে। তখন আগামী বছরের নভেম্বর পর্যন্ত ক্রিকেট থেকে দূরে থাকতে হতো সাকিবকে। এতে করে আগামী বছর অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিতব্য টি-টোয়েন্টি বিশ^কাপে খেলার সুযোগ পুরোটাই বন্ধ হয়ে যেতো তার। ফলে টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপে খেলার জন্যই ভারত সফরের আগে নিষেধাজ্ঞা চেয়েছেন সাকিব।
বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) নির্বাচক ও সাবেক অধিনায়ক হাবিবুল বাশার বললেন, সাকিবকে যেহেতু শাস্তিটা পেতেই হবে তাই ভাবনা-চিন্তা করেই এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে সে। কেননা ভারতে সিরিজ চলাকালীন নিষেধাজ্ঞা পেলে সিরিজে একটা বিরূপ প্রভাব পড়তো। সেই সঙ্গে বিদেশের মাটিতে দেশের ভাবমূর্তিও নষ্ট হতো। তাই ভারত সফরের আগেই নিষেধাজ্ঞা মেনে নেয়াটা শ্রেয়তর মনে করেছেন সাকিব।
একই ইস্যুতে কথা বললেন বিসিবির পরিচালক সাজ্জাদুল ইসলাম ববি। তিনি বলেন, সাকিবের সিদ্ধান্ত ঠিকই আছে। কেননা দেশের বাইরে গিয়ে শাস্তির সংবাদ পাওয়াটা দেশের ইমেজে নেতিবাচক কালিমা লাগতে পারতো। তাছাড়া ভারত সফরের পরে যদি শাস্তি মানতো তাহলে আরও বড় ক্ষতি হতো।
আগামী বছরের ১৮ অক্টোবর থেকে টি-২০ বিশ^কাপ মাঠে গড়াবে। আর সাকিবের শাস্তির মেয়াদ শেষ হবে ২৯ তারিখে। এখন আইসিসির দুর্নীতি বিরোধী কর্মকা-ে ঠিকঠাকভাবে অংশ নিতে পারলে বিশ^কাপের প্রথম ম্যাচ থেকেই ২২ গজে দেখা মিলতে পারে বিশ^সেরা এ অলরাউন্ডারের। সম্পাদনা : রমাপ্রসাদ বাবু




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]