আংশিক দাবি পূরণ হলেও রাজ পথ ছাড়ছেন না বিক্ষোভকারীরা

আমাদের নতুন সময় : 05/11/2019

আসিফুজ্জামান পৃথিল, শাহনাজ বেগম : এই হামলা ও মৃত্যুর খবরটি নিশ্চিত করেছেন একজন প্রত্যক্ষদর্শী ও নিরাপত্তা সূত্রগুলো। এর আগে বিক্ষোভকারীরা শিয়াদের পবিত্র নগরিটির আশেপাশের এলাকায় ব্যারিকেড তৈরী করে রাখে। আল-জাজিরা
ব্যারিকেড তৈরী করে ইরাকের পতাকা উড্ডয়ন করে তারা। এসময় তারা ‘কারবালা মুক্ত, ইরান চলে যাও’ স্লোগান দিতে থাকেন। বিশ্লেষকরা বলছেন, ইরাকের সরকারবিরোধী বিক্ষোভ সময়ের সঙ্গে পরিণত হচ্ছে জাতিগত বিক্ষোভে। এটি পরিণত হতে পারে শিয়াবিরোধী সাম্প্রদায়িক দাঙ্গায়। এসময় টায়ার জ¦ালিয়ে পুলিশের দিকে পাথর ছুড়তে থাকেন বিক্ষোভকারীরা। জবাবে পুলিশ ফাঁকা গুলি ছোঁড়ে। বিক্ষোভকারী বাড়তে থাকলে পুলিশ তাজা গুলি ও টিয়ার গ্যাস নিক্ষেপ করে। এক তরুণ বিক্ষোভকারী পুলিশকে বলেন, ‘তারা আকাশে গুলি ছোঁড়েনি। তারা আমাদের তাঁড়াতে নয়, হত্যা করতে চেয়েছে।’
এদিকে ইরাকের প্রধানমন্ত্রী আদেল আবদুল মাহদি দেশটির স্বাভাবিক অবস্থা ফিরিয়ে আনতে বিক্ষোভকারীদের প্রতি আবেদন জানিয়ে বলেছেন, দেশেরএই অস্থিরতা ও সড়ক অবরোধে তেল রপ্তানি না করতে পারায় কোটি কোটি ডলার লোকসান হচ্ছে। রোববার সন্ধ্যায় প্রকাশিত এক বিবৃতিতে মাহদি জানান, দেশজুড়ে বিক্ষোভে রাজনৈতিক ব্যবস্থাকে শক্ত ঝাঁকুনি দিতে বিক্ষোভকারীদের যে উদ্দেশ্য ছিলো তা অর্জিত হয়েছে। দেশের বাণিজ্য ও অর্থনৈতিক কর্মকা-কে প্রভাবিত করে এমন বিক্ষোভ অবশ্যই বন্ধ করা উচিত। চলমান বিক্ষোভে দেশটির পণ্যের দাম বেড়ে যাচ্ছে বলেও সতর্ক করেছেন তিনি। সম্পাদনা : ইকবাল খান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]