• প্রচ্ছদ » সর্বশেষ » দেশ একজন সত্যিকারের দেশপ্রেমিক হারালো বললেন আমীর খসরু চৌধুরী ও মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম


দেশ একজন সত্যিকারের দেশপ্রেমিক হারালো বললেন আমীর খসরু চৌধুরী ও মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম

আমাদের নতুন সময় : 07/11/2019


দেবদুলাল মুন্না : জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ) একাংশের সভাপতি ও চট্রগ্রাম-৮ আসনের সংসদ সদস্য মইন উদ্দীন খান বাদল গতকাল বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় ভোর সাড়ে ৫টায় ভারতের বেঙ্গালুরে নারায়ণ হৃদরোগ ইনস্টিটিউটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। তার মৃত্যু পরবর্তী প্রতিক্রিয়ায় বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিবি) সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম বলেন, ‘মইন উদ্দীন খান বাদলসহ আমরা নব্বই দশকে স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনে সোচ্চার ছিলাম। তার সাথে একবার বাম মোর্চা গঠনের ব্যাপারে বসেছিলাম। সেসময় তিনি বলেছিলেন, আমাদের ঠিকানা তো সমাজতন্ত্র। তবে এতো এতো ভিন্ন পথে আমরা ঘুরছি কেন? তার এই কথাটি মার্কেবল। আমরা সত্যি একজন সমাজতন্ত্রে বিশ্বাসী মানুষকে হারালাম। তিনি আপাদমস্তক অসাম্প্রদায়িক ছিলেন। দেশকে এগিয়ে নেওয়া এবং রাজাকারমুক্ত করার জন্যে তিনি শেষের দিকে রাজনৈতিকভাবে অনেক আপস করেছেন আওয়ামীলীগের রাজনীতিবান্ধব হয়ে। কিন্তু ব্যক্তিগতভাবে কখনো বিচ্যুত হননি। ক্ষমতা বা অর্থলোভী ছিলেন না তিনি। কথা বলতেন সরাসরি অকপটতার সঙ্গে। একটু তাড়াতাড়িই যেন চলে গেলেন তিনি। বয়স কিন্তু বেশি হয়নি। তার মৃত্যুতে আমি শোকাহত।
বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী মইন উদ্দীন খান বাদলের মতোই বৃহত্তর চট্রগ্রামের সন্তান। তিনি বলেন, ‘তার (বাদল) বড় গুণ ছিলো তিনি যেটি বিশ্বাস করতেন সেটি প্রবলভাবেই প্রতিষ্ঠিত করতে চাইতেন। তিনি কোনো ভণিতা পছন্দ করতেন না। তিনি চট্রগ্রাম-৮ (বোয়ালখালী-চান্দগাঁও) আসন থেকে তিনবার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন। এতেই বোঝা যায়, তিনি কতোটা জনপ্রিয় ছিলেন। আমাদের দু’জনের মধ্যে রাজনৈতিক মতাদর্শিক পার্থক্য ছিলো। কিন্তু সেটি কখনোই বাধা হয়নি। তিনি মিশুক স্বভাবের ছিলেন। দেশপ্রেমিক ছিলেন। বেশ কয়েকটি মেজবান অনুষ্ঠানে আমাদের দেখা হয়েছে। তিনি আমি পাশাপাশি বসেই খাবার সেরেছি। গল্প করেছি বিভিন্ন বিষয়ে। অনলবর্ষী বক্তা হিসেবে তাকে পছন্দ করতাম আমি।’
উল্লেখ্য, ছাত্রলীগের রাজনীতি থেকে উঠে আসা বাদল ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধে সক্রিয়ভাবে অংশ নেন। চট্টগ্রাম বন্দরে বাঙালিদের ওপর আক্রমণের জন্য পাকিস্তান থেকে আনা অস্ত্র সোয়াত জাহাজ থেকে খালাসের সময় প্রতিরোধের অন্যতম নেতৃত্বদাতা ছিলেন বাদল। সম্পাদনা : ভিক্টর কে. রোজারিও




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]