• প্রচ্ছদ » প্রথম পাতা » সিটি করপোরেশন নির্বাচনে এককভাবে অংশ নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে জাতীয় পার্টি


সিটি করপোরেশন নির্বাচনে এককভাবে অংশ নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে জাতীয় পার্টি

আমাদের নতুন সময় : 08/11/2019

ইউসুফ বাচ্চু : আসন্ন ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচনে অংশগ্রহণের সিদ্ধান্ত নিয়েছে জাতীয় সংসদে প্রধান বিরোধী দল জাতীয় পার্টি। এককভাবে লাঙ্গল প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করার পরিকল্পনা নিয়েছে দলটি। এ লক্ষ্যে ইতিমধ্যে সম্ভাব্য মেয়র এবং কাউন্সিলর প্রার্থীদের তৈরি হওয়র জন্য পার্টির হাইকমান্ড থেকে নির্দেশনাও দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন দলটির মহাসচিব মশিউর রহমান রাঙা। এ লক্ষ্যে সম্ভাব্য প্রার্থীরা জনসংযোগের পাশাপাশি শুভেচ্ছা বিনিময় শুরু করেছেন। দলের একাধিক নেতার সঙ্গে কথা বলে এ তথ্য জানা গেছে।
ঢাকার দুই সিটিতে জানুয়ারিতে নির্বাচন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইসি। দুই সিটিতে একদিনেই ভোট হবে। এ মাসেই তফসিল ঘোষণা হবে। এতে করে বড় দুই দল আওয়ামী লীগ এবং বিএনপির সম্ভাব্য মেয়র এবং কাউন্সিলর প্রার্থীরা ভোটের লড়াইয়ে তাদের উপস্থিতির বিষয়টি জানান দিতে শুরু করেছেন। এ অবস্থায় প্রতিযোগিতায় থাকতে চায় এরশাদের জাতীয় পার্টিও।
দলটির মহাসচিব মশিউর রহমান রাঙা বলেন, ঢাকা মহানগরীর আজকের যে চিত্র মানুষ দেখছে তার মূল কারিগর ছিলেন সাবেক রাষ্ট্রপতি ও জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ।
তার হাত ধরেই আজকের ঢাকার এত উন্নয়ন। তিনি (এরশাদ) আজ নেই। তার স্বপ্নকে এগিয়ে নিতে জাতীয় পার্টি দুই সিটিতেই নির্বাচনে অংশ নেবে। তবে প্রার্থী কে হবেন- তা দলীয় ফোরামে বসে আমরা ঠিক করব। প্রয়োজেনে প্রার্থী বাছাইয়ের জন্য একটি কমিটি করে দেয়া হবে।
সর্বশেষ ২০১৫ সালের ২৮ এপ্রিল তিন সিটিতে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। ঢাকা উত্তর সিটিতে ২০১৫ সালের ১৪ মে, দক্ষিণ সিটিতে ওই বছরের ১৭ মে এবং চট্টগ্রাম সিটিতে ৬ আগস্ট প্রথম সভা অনুষ্ঠিত হয়।
এ হিসাবে ঢাকার উত্তর সিটিতে ১৩ মে, দক্ষিণ সিটিতে ১৬ মে এবং চট্টগ্রাম সিটিতে ৫ আগস্ট মেয়াদ শেষ হবে। স্থানীয় সরকার (সিটি কর্পোরেশন) আইন-২০০৯ অনুযায়ী, মেয়াদ শেষ হওয়ার আগের ১৮০ দিনের মধ্যে ভোটগ্রহণ করার বাধ্যবাধকতা রয়েছে।
গত নির্বাচনে দক্ষিণ সিটিতে জাতীয় পার্টির মেয়র প্রার্থী শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত ভোটের মাঠে ছিলেন। কিন্তু দলটি উত্তরে কোনো প্রার্থী দেয়নি। পরে উপনির্বাচনে সংগীত শিল্পি শাফিন আহমেদ প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।
এ বিষয় জাতীয় পার্টির মহাসচিব মশিউর রহমান রাঙা বলেন, জাতীয় নির্বাচনের ক্ষেত্রে আমাদের জোট ছিলো কিন্তু স্থানীয় সরকার নির্বাচন আমরা একক ভাবে নির্বাচনের অংশগ্রহন করতে চাই।
প্রার্থী কে হচ্ছেন এমন প্রশ্নের জবাবে রাঙা বলেন, দলের ক্লিন ইমেজের যোগ্য লোকদের মনোনয়ন দেয়া হবে। তবে এবার দক্ষিনে দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য হাজী মিলন। উত্তরে অপর এক প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সাবেক কাউন্সিলর শফিকুল ইসলাম সেন্টু, যুগ্ম মহাসচিব হাসিবুল ইসলাম জয়ের নাম শোনা যাচ্ছে।
জানতে চাইলে এ প্রসঙ্গে জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও ঢাকা মহানগর উত্তরের সভাপতি এসএম ফয়সল চিশতী সোমবার বলেন, আপাতত আমাদের লক্ষ্য এককভাবে নির্বাচনে অংশ নেয়া। পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে জোটগত নির্বাচনে অংশ নিলে তা দলীয় ফোরামে আলোচনার পরই সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। সম্পাদনা : ইকবাল খান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]