অযোধ্যা মামলার রায়ে বিশ^মিডিয়ায় মিশ্র প্রতিক্রিয়া

আমাদের নতুন সময় : 09/11/2019

রাশিদ রিয়াজ : পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কোরেইশী বলেছেন, বাবরি মসজিদ নিয়ে অযোধ্যা মামলার রায়ে মোদী সরকারের ধর্মান্ধ আদর্শের প্রতিফলন ঘটেছে। তিনি বলেন, ভারতে এমনিতেই মুসলমানরা তীব্র চাপের মধ্যে আছে, বাবরি মসজিদ নিয়ে আদালতের এ রায় তাদের ওপর আরো চাপ বৃদ্ধি করবে।
সঙ্গত কারণেই পাকিস্তানের মিডিয়ায় ভারতে বাবরি মসজিদে ভেঙ্গে সেখানকার জমি হিন্দুদের হাতে তুলে দিয়েছে সর্ব্বোচ্চ আদালত এমন শিরোনামে এসেছে খবরটি। এ নিয়ে ডন’এর প্রতিবেদনে বলা হয় একদিকে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট বলছে বাবরি মসজিদ ভেঙ্গে ফেলা আইনের চরম লঙ্ঘন আবার মসজিদটির জন্যে অন্যত্র জমি দেয়ার নির্দেশ দিয়েছে। এক্সপ্রেস ট্রিবিউনের শিরোনাম ছিল. ‘ইন্ডিয়া এস সি রুলস টু হ্যান্ড ওভার বাবরি মস্ক ল্যান্ড টু হিন্দুস’। এমনকি বিবিসি বাংলার শিরোনাম হচ্ছে, ‘ বাবরি মসজিদ-রাম মন্দির বিতর্ক : ভেঙ্গে ফেলা মসজিদের জায়গায় মন্দির বানানোর পক্ষেই রায় দিয়েছে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট’। এছাড়া পাকিস্তানের বিভিন্ন মিডিয়া এ রায়ের সমালোচনা করে বলেছে, ৪৬০ বছরের পুরোনো বাবরি মসজিদ ভেঙ্গে ফেলার পর বিতর্কিত জমিতে মন্দির তৈরির রাস্তা তৈরি করে দিয়েছে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট। এবং ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সরকারের আমলে এটি হিন্দু জাতীয়তাবাদীদের জন্যে বিশাল বিজয়।
আল-জাজিরার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে হিন্দুদের বাবরি মসজিদের বিতর্কিত জমি দিয়ে দিয়েছে ভারতের শীর্ষ আদালত। রুশ বার্তাসংস্থা স্পুটনিক ইন্টারন্যাশনাল এ নিয়ে প্রতিবেদনে বলছে হিন্দুদের পক্ষেই ভারতের সুপ্রিম কোর্ট বিতর্কিত জমিতে রামমন্দির নির্মাণের রায় দিয়েছে। ব্রিটেন ভিত্তিক নিউ আরব নামে আরবি ওয়েবসাইটের খবরে বলা হয়েছে ভারতের আদালত হিন্দুদের বাবরি মসজিদের জমি দিয়ে দিয়েছে। সম্পাদনা : ইকবাল খান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]