• প্রচ্ছদ » সর্বশেষ » ইডেন কলেজে এক ছাত্রলীগ নেত্রীকে কোপালেন আরেক নেত্রী, সংঘর্ষে আহত ১০


ইডেন কলেজে এক ছাত্রলীগ নেত্রীকে কোপালেন আরেক নেত্রী, সংঘর্ষে আহত ১০

আমাদের নতুন সময় : 09/11/2019


মাসুদ আলম, ওবায়দুর রহমান : গতকাল সকাল সাড়ে ৭টায় ইডেন মহিলা বিশ^বিদ্যালয় কলেজের শেখ ফজিলাতুন্নেছা হলে এ ঘটনা ঘটেছে। সংঘর্ষের ঘটনায় কলেজ শাখা ছাত্রলীগের আহবায়ক কমিটির সদস্য সাবিকুন্নাহার তামান্নাসহ (২২) প্রায় দশজন আহত হয়েছেন। হলে বহিরাগতদের থাকা নিয়ে এ সংঘর্ষ হয়েছে। ঘটনার পর ক্যাম্পাসে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।
প্রত্যক্ষদর্শী শিক্ষার্থীরা জানান, কলেজ শাখা ছাত্রলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মাহবুবা নাসরিন রূপা বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা হলে ২১৯ নং কক্ষে নাবিলা নামের একজন বহিরাগত প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীকে টাকার বিনিময়ে রাখতেন। তাকে অবৈধভাবে রুমে রাখাকে কেন্দ্র করে হলের অন্য নেত্রীদের সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয়। কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে রূপা তার অনুসারীদের নিয়ে অন্য নেত্রীদের উপর হামলা করেন। পরে কলেজ শাখা ছাত্রলীগের আরেক যুগ্ম আহ্বায়ক আঞ্জুমান আরা অনুর সর্মথকরা পাল্টা হামলা চালান। এসময় রূপার বটির আঘাতে তামান্নার বাম হাত কেটে যায়। তিনি ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন। অনুর অনুসারি তামান্না। এ ঘটনায় সাধারণ শিক্ষার্থীদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। দীর্ঘদিন ধরে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে রূপা ও অনুর মধ্যে বিরোধ চলছিলো।
এ বিষয়ে রূপা বলেন, এমন কোনো সমর্থক তৈরি করিনি, যারা শিক্ষার্থীদের মারধর করবে। অনুর সর্মথকরা বঙ্গমাতা হলে গিয়ে আমার কর্মীদের ওপর হামলা করে। পরে আমার ২০৮ নম্বর কক্ষে গিয়ে আইফোন এবং ৭ হাজার ৫০০ টাকা ছিনতাই করে নিয়ে যায়। নাবিলাকে মারধর করেছে খবর পেয়ে সেখানে গেলে তারা আমার উপরও হামলা চালায়। তারা ৬টি হলের প্রত্যেকটি পলিটিক্যাল রুমে গিয়ে রুমের কর্মীদের মারধর করে। নাবিলা তার চাচাতো বোন এবং ইডেন কলেজের ডিগ্রির শিক্ষার্থী।
আনজুমানারা অনু বলেন, আমি ক্যাম্পাসে ছিলাম না, ঘটনার পরে আসছি। আমি কাউকে মারধর করিনি। উল্টো আমার কর্মীদের মারধর করা হয়েছে।
এ ঘটনায় লালবাগ থানার ওসি একেএম আশরাফ উদ্দিন বলেন, হলে মেয়েদের মধ্যে মারামারির ঘটনায় কয়েকজন আহত হয়েছে। এখন পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। যে কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।
এ বিষয়ে ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় বলেন, সামান্য হাতাহাতি হয়েছে বলে আমরা শুনেছি। ঘটনার বিষয়ে পুরোপুরি অবগত হয়ে ব্যবস্থা গ্রহণ করবো । সম্পাদনা : খালিদ আহমেদ, ভিক্টর কে. রোজারিও




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]