• প্রচ্ছদ » সর্বশেষ » এবার তাজমহল আর দিল্লি জামে মসজিদের স্থানে মন্দির করার পরিকল্পনা বিজেপির


এবার তাজমহল আর দিল্লি জামে মসজিদের স্থানে মন্দির করার পরিকল্পনা বিজেপির

আমাদের নতুন সময় : 12/11/2019

আসিফুজ্জামান পৃথিল : অনেক মুসলিম স্থাপত্যের ক্ষেত্রেই আগে মন্দির থাকার অভিযোগ করে আসছে বিজেপি। এর মধ্যে রয়েছে দিল্লি জামে মসজিদ ও তাজমহলের মতো কালজয়ী স্থাপত্যও। অযোধ্যা মামলার রায়ে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট বলেছে, হিন্দুরা বিশ^াস করে এই স্থানে রাম জন্মেছিলেন। শুধুমাত্র এই বিশ^াসের ভিত্তিতেই মসজিদের স্থানটিতে মন্দির তৈরীর নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এই রায় ব্যবহার করে একই যুক্তি তাজমহল ও জামে মসজিদের ক্ষেত্রেও খাটাতে চায় ক্ষমতাসীন দলটি। দ্য ওয়ার, স্ক্রল।
এর আগে বেশ কয়েকজন বিজেপি এমপি দাবি করেছেন, তাজমহলের স্থলে একটি শিব মন্দির ছিলো। যার নাম তাজো মহালয়া। এই দাবি প্রথম করেছিলেন হিন্দুত্ববাদী ইতিহাসবিদ পিএন ওক। তবে এই দাবির প্রেক্ষিতে কোনও ধরণের ঐতিহাসিক বা স্থাপত্য দলিল নেই। এটি যতটা না ঐতিহাসিক সত্য তার চেয়ে অনেক বেশি মিথ। ২০১৭ সালে তাজমহল ভেঙে শিব মন্দির করার এ বক্তব্য উত্তর প্রদেশের এক বিজেপি নেতা। তিনি এজন্য আগ্রার আদালতে একটি পিটিশনও দায়ের করেন। তার দাবি এই পুরাকীর্তিটির মালিকানা হিন্দুদের কাছে হস্তান্তর করতে হবে। যেনো তারা সেখান থেকে শাহজাহান আর মমতাজ মহলের সমাধি সরিয়ে শিব মন্দির স্থাপন করতে পারেন। মামলাটি পুনরুজ্জিবিত করতে চায় বিজেপির হাইকমান্ড। বেশ কিছু দলীয় সূত্র বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।
এদিকে বেশ কয়েকবছর ধরে কট্টরপন্থী হিন্দু নেতা স্বাক্ষী মহারাজ দাবি করে আসছেন, দিল্লি জামে মসজিদও একটি প্রাচীন হিন্দু মন্দিরের ভিতের উপর নির্মিত। তিনি দাবি করেছেন যেহেতু দিল্লিই ছিলো সাবেক হস্তিনাপুর তাই দিল্লিতে কোনও ধরণের মুসলিম স্থাপনা থাকতে পারবে না। তার ফতোয়ার ভিত্তিতে হস্তিনাপুর-মথুরা-বৃন্দাবন-আগ্রা-পানিপথকে ঘিরে একটি মহাভারত জোন তৈরী করতে চায়। এজন্য বিজেপি হাইকমান্ড জামে মসজিদের স্থলে একটি মন্দির নির্মানের জন্য আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে। সম্পাদনা : ইকবাল খান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]