• প্রচ্ছদ » শেষ পাতা » রূপপুরে বালিশকান্ডে ৫ প্রকৌশলীকে জিজ্ঞাসাবাদ অনেক তথ্য মিলছে বলে জনিয়েছে দুদক


রূপপুরে বালিশকান্ডে ৫ প্রকৌশলীকে জিজ্ঞাসাবাদ অনেক তথ্য মিলছে বলে জনিয়েছে দুদক

আমাদের নতুন সময় : 12/11/2019


লাইজুল ইসলাম : গতকাল সোমবার উপ-পরিচালক মো. নাসির উদ্দিনের নেতৃত্বে একটি অনুসন্ধান টিম তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করে। সকাল ১০টায় সেগুনবাগিচার দুদকের প্রধান কার্যালয়ে পাবনা গণপূর্ত সার্কেলের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী দেবাশীষ চন্দ্র সাহা, রাজশাহী সার্কেলের গণপূর্ত বিভাগের উপ সহকারি পরিচালক আহসানুল হক ও সহকারি প্রকৌশলী পাবনা গণপূর্ত রাকিবুল ইসলামকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। দুপুরে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) সচিব মুহাম্মদ দিলোয়ার বখত বলেন, পাবনার রূপপুর পরমাণু বিদ্যুৎ প্রকল্পের বিভিন্ন ভবনের জন্য বিছানা, বালিশ ও আসবাবপত্র কেনা নিয়ে দুর্নীতির ঘটনায় গণপূর্তের প্রকৌশলীদের জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। আর এই জিজ্ঞাসাবাদে গুরুত্বপূর্ণ অনেক তথ্য মিলছে। তিনি আরও বলেন, ‘জিজ্ঞাসাবাদে পাওয়া তথ্য-উপাত্ত যাচাই করে দেখা হচ্ছে। দালিলিক প্রমাণ মিললেই এ ঘটনায় মামলা হবে। ।’
গত ৩ নভেম্বর রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক শৌকত আকবরসহ মোট ৩৩ প্রকৌশলীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তলব করে চিঠি দেয়া হয়। ৬ নভেম্বর গণপূর্ত বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী (ওএসডি) মাসুদুল আলমসহ সাত প্রকৌশলীকে এ সংক্রান্ত দুর্নীতির বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করে দুদক। গত বৃহস্পতিবার গণপূর্ত অধিদপ্তরের সাত প্রকৌশলীকে জিজ্ঞাসাবাদ করে দুদক। তারা হলেন গণপূর্ত বিভাগের সহকারী প্রকৌশলী আমিনুল ইসলাম, পাবনা গণপূর্ত বিভাগের উপ-সহকারী প্রকৌশল মো. শফিকুল ইসলাম ও সুমন কুমার নন্দী, রাজশাহী গণপূর্ত সার্কেলের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী এ কে এম জিল্লুর রহমান, পাবনা গণপূর্ত বিভাগের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী আহমেদ সাজ্জাদ খান, পাবনা গণপূর্ত বিভাগের উপ-সহকারী প্রকৌশলী মো. শাহীন উদ্দিন ও মো. জাহিদুল করিম। সম্পাদনা : খালিদ আহমেদ




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]