বলিভিয়ার স্বঘোষিত অন্তবর্তীকালীন প্রেসিডেন্ট জিয়ানিন আনেয

আমাদের নতুন সময় : 13/11/2019


আসিফুজ্জামান পৃথিল, শাহনাজ বেগম : তিনি দেশটির সিনেটের প্রধান। মঙ্গলবার দেশটির কংগ্রেসে এই ঘোষণা দেন আনায। তাকে অনুমোদন দিয়েছে কংগ্রেসের একটি কোরাম। অবশ্য নির্বাসিত প্রেসিডেন্ট ইভো মোরালেমের বামপন্থী দল এই অধিবেশন বয়কট করে। আল জাজিরা
ডানপন্থী এই নেত্রী বলেনে, ‘প্রেসিডেন্ট এবং ভাইস প্রেসিডেন্টের অনুপস্থিতিতে সিনেট চেম্বারের প্রেসিডেন্ট হিসেবে, আমি সংবিধানিক ক্ষমতাবলেই এই দায়িত্ব নিচ্ছি।’ তবে এই ঘোষণার পরেও রাজধানী লা পাজের অবস্থা এখনও খুব একটা স্বাভাবিক হয়নি। নগরিজুড়ে এখনও চলছে লুটপাট ও সহিংসতা। তবে পুলিশের সঙ্গে এখন মূলত সংঘর্ষ হচ্ছে ইভো মোরালেসের সমর্থকদের। বিশ্লেষকরা বলছেন, যে কোনও সময় দক্ষিণ আমেরিকার দেশটিতে গৃহযুদ্ধ লেগে যেতে পারে। দেশটির সাবেক নেতা ইভো মোরালেস তীব্র বিক্ষোভের মুখে পদত্যাগ করার পর মেক্সিকোয় আশ্রয় নিয়েছেন। জেনিন আনেযের ঘোষণার নিন্দা জানিয়ে তাকে অভ্যুত্থানের ষড়যন্ত্রকারী ডানপন্থী সিনেটর আখ্যা দিয়েছেন তিনি। এক টুইট বার্তায় তিনি এই ঘোষণাকে ইতিহাসের সবচেয়ে ঘৃণ্য, গোপন অভ্যুত্থান বলে মন্তব্য করেন।
গত ২০ অক্টোবর অনুষ্ঠিত নির্বাচন নিয়ে তৈরি হওয়া অসন্তোষের জেরে সেনাবাহিনীর চাপের মুখে পদত্যাগের ঘোষণা দেন বলিভিয়ার প্রথম আদিবাসী প্রেসিডেন্ট ইভো মোরালেস। তার পদত্যাগের পর প্রেসিডেন্ট পদের জন্য তার সাংবিধানিকভাবে উত্তরাধিকার হতে সক্ষম সবাই পদত্যাগ করেন। ফলে দক্ষিণ আমেরিকার এই দেশটিতে কোন প্রক্রিয়ায় কে নতুন প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব নেবেন তা নিয়ে অনিশ্চয়তা তৈরি হলে বলিভিয়া সাময়িকভাবে নেতৃত্ব শূন্য হয়ে পড়ে।




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]