• প্রচ্ছদ » শেষ পাতা » দ্বিপাক্ষিক আলোচনা, সফর আমন্ত্রণের মধ্য দিয়ে শেষ হলো ব্রিকসের ১১তম শীর্ষ সম্মেলন


দ্বিপাক্ষিক আলোচনা, সফর আমন্ত্রণের মধ্য দিয়ে শেষ হলো ব্রিকসের ১১তম শীর্ষ সম্মেলন

আমাদের নতুন সময় : 14/11/2019

 

ইমরুল শাহেদ : ভবিষ্যতের জন্য অর্থনৈতিক উন্নয়নের পন্থা উদ্ভাবনের শ্লোগান নিয়ে গত বুধবার ব্রাজিলের রাজধানী ব্রাজিলিয়ায় শুরু হওয়া দুই দিনের ব্রিকসের ১১তম শীর্ষ সম্মেলন গতকাল শেষ হয়েছে। এই সম্মেলনে যোগ দিয়েছেন ব্রাজিল, চীন, রাশিয়া, ভারত ও দক্ষিণ আফ্রিকার রাষ্ট্রপ্রধানরা। অর্থনীতির ভবিষ্যৎ নিয়ে চিন্তা-ভাবনা ছাড়াও এবারের ব্রিকস সম্মেলনে সন্ত্রাস দমন, আর্থিক সহযোগিতার ক্ষেত্র বাড়ানো, সাংস্কৃতিক মেলবন্ধন – এই তিনটি বিষয়ের ওপর সর্বাধিক গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। এছাড়া বিশ্বের এসব নেতাদের মধ্যে দ্বি-পাক্ষিক স্বার্থ-সংশ্লিষ্ট বিষয় নিয়েও আলোচনা হয়েছে। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী রুশ প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিন, চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং এবং ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট বোলসোনারোর সঙ্গে দ্বি-পাক্ষিক বৈঠক করেছেন। কিন্তু দ্বি-পাক্ষিক বৈঠক হয়নি বিশ্বের দুই প্রভাবশালী দেশ চীন ও রাশিয়ার মধ্যে। তবে দুটি দেশই রাজনৈতিকভাবে উৎসাহিত সংরক্ষণবাদকে নিরুৎসাহিত করে বক্তব্য দেয় ব্রিকস সম্মেলনে। ইকোনোমিক টাইমস, আজকাল, ডয়েচে ভেলে
বুধবারের বৈঠকের পর পুতিন ৯ মে রাশিয়ার বিজয় দিবস বা জাতীয় দিবসে রাশিয়া সফরের জন্য মোদীকে আমন্ত্রণ জানান। পুতিনের আমন্ত্রণ গ্রহণ করেছেন মোদী। ওই দিন নাৎসি বাহিনী সোভিয়েত সেনাদের কাছে আত্মসমর্পণ করেছিল। মোদী সেই আমন্ত্রণ গ্রহণ করেছেন। এছাড়া মোদীও ভারতের আগামী সাধারণতন্ত্র দিবসে প্রধান অতিথি হিসেবে আমন্ত্রণ জানান ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট বোলসোনারোকে। তিনিও?আমন্ত্রণ গ্রহণ করেছেন।
ব্রিকস সম্মেলনে সামরিক অভ্যুত্থান ও অশান্তির ঘটনা যে ব্রাজিলে বড় ছায়া ফেলেছে তা নিয়েও আলোচনা হয়। বলিভিয়ার পরিস্থিতিতে উদ্বেগ প্রকাশ করেন ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট বোলসোনারো-সহ পুতিন, জিনপিং, মোদী। বলিভিয়ার প্রেসিডেন্ট ইভো মোরালেসকে প্রাণ বাঁচাতে আশ্রয় নিতে হয়েছে মেক্সিকোতে। বলিভিয়ায় যাতে কেউ সামরিক হস্তক্ষেপ না করে বা প্রভাব খাটানোর চেষ্টা না করে সেজন্য আমেরিকা, ব্রাজিলকে সতর্ক করে দিয়েছেন পুতিন। সম্পাদনা : ইকবাল খান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]