• প্রচ্ছদ » » গুলতেকিন জীবনকে গুরুত্ব দেয়ার সাহস দেখিয়েছেন এই সমাজে


গুলতেকিন জীবনকে গুরুত্ব দেয়ার সাহস দেখিয়েছেন এই সমাজে

আমাদের নতুন সময় : 15/11/2019

আলী আসগর স্বপন

বিয়ে করেছেন গুলতেকিন। জীবনকে গুরুত্ব দেয়ার সাহস দেখিয়েছেন এ সমাজে। অভিনন্দন গুলতেকিন খানকে। সপ্তাহ দুয়েক আগে বিয়ে করলেও হুমায়ূন আহমেদের জন্মদিবসে কেউ হঠাৎ উসকেছেন হয়তো। তবু খবরটা দিয়ে আমাদের ভালো লাগিয়েছেন। ৫৬ বছর বয়সের গুলতেকিন। তার আছে বড় ছেলেমেয়ে-নাতি। তেমন নারীর বিয়ে এ সমাজ দেখতে অভ্যস্ত না হলেও হোক, তিনি তার কষ্টটা শেয়ার করার মানুষ নিয়ে সুখে থাকুন। সন্তানদের সমর্থনটাও ভালো লাগার। যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব, কবি আফতাব আহমেদের সঙ্গে সাত বছরের পরিচয়ের সূত্র ধরে ভালোলাগা এবং ভালোবাসায় একাকী জীবনের ইতি টানলেন গুলতেকিন। অভিনন্দন দুজনকেই। ১৯৭৩ সালে হুমায়ূন আহমেদের সঙ্গে প্রেম ভালোবাসার বিয়ে হয় গুলতেকিনের। তাদের দাম্পত্য জীবনে তিন মেয়ে দুই ছেলের জন্ম হয়। ১৯৯০ সালের মধ্যভাগে মেয়ে শীলা আহমেদের বান্ধবী বুয়েট ছাত্রী শাওনের সঙ্গে পরিচয় প্রণয়ের পর ২০০৫ সালে হুমায়ূন আহমেদ বিয়ে করেন শাওনকে। তারপর থেকেই গুলতেকিন তার একাকীত্ব জীবন শুরু করেন। ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]