• প্রচ্ছদ » টুকরো খবর » বাঘার শামুকখোল পাখিগুলোকে আমবাগান ছাড়তে হবে না, বাগান ভাড়া দেবে সরকার


বাঘার শামুকখোল পাখিগুলোকে আমবাগান ছাড়তে হবে না, বাগান ভাড়া দেবে সরকার

আমাদের নতুন সময় : 15/11/2019


সাজিয়া আক্তার : রাজশাহী জেলা প্রশাসক মো. হামিদুল হক এই তথ্য জানিয়েছেন। তিনি বলেন, রাজশাহীর বাঘা উপজেলার খোর্দ্দ বাউসা গ্রামের আম বাগানে ‘স্থায়ী নীড়’ হচ্ছে ‘বাড়ি ছাড়ার নোটিশ পাওয়া শামুকখোল পাখিগুলোর। তাই যতদিন ইচ্ছে নিরাপদ নীড়ে থাকতে পারবে পাখিগুলো। কেউ তাদের তাড়িয়ে দিতে পারবে না। এরই মধ্যে তাদের বাসা ভাড়ার টাকা নির্ধারণ করেছে রাজশাহী জেলা প্রশাসন। সেই আবেদন পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে কৃষি মন্ত্রণালয়েও। অনুমোদন পেলে পাখিগুলোর ভাসা ভাড়া হিসেবে ক্ষতিগ্রস্ত আমবাগান ইজারাদার বছরে ৩ লাখ ১৩ হাজার টাকা করে পাবেন। শর্ত একটাই- বাসা ভাঙা যাবে না। এর মধ্য দিয়ে কয়েকশ বাচ্চা নিয়ে আপন নিবাস হারানোর শঙ্কায় থাকা শামুকখোল পাখিগুলো নির্ভার হতে চলেছে। তাদের কলকাকলিতে সব সময়ই মুখর হয়ে থাকবে বাঘার প্রত্যন্ত খোর্দ্দ বাউসা গ্রাম। শিগগিরই মন্ত্রণালয় থকে তাদের বাসা ভাড়ার টাকা ছাড় পাবে বলেও আশা করা হচ্ছে।
পাখিরা বাসা ভাড়ার টাকা পাচ্ছে জানিয়ে রাজশাহীর বাঘা উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা শফিউল্লাহ সুলতান বলেন, ঘটনাটি নজরে আসার পর পরই পাখির বাসা রক্ষার উদ্যোগ নেয় রাজশাহী জেলা প্রশাসন।এরই মধ্যে হাইকোর্ট থেকেও নির্দেশনা আসে।তিনি বিষয়টি নিয়ে রাজশাহী জেলা প্রশাসকের সঙ্গে কথা বলেন। তিনিই সব নির্দেশনা দেন।
পরে রাজশাহী জেলা প্রশাসকের নির্দেশে ওই আমবাগানে গিয়ে জরিপ চালান।উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহীন রেজার নেতৃত্বে তারা বাগানে গিয়ে দেখেন, মোট ৩৮টি আমগাছে বাসা বেঁধেছে শামুকখোল পাখিগুলো।সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলার পর তথ্যগুলো যাচাই-বাছাই করেন। আমগাছে শামুকখোল পাখির বাসাজরিপ শেষে ওই আমগাছগুলো থেকে বছরের সম্ভাব্য আম উৎপাদন ও তার সম্ভাব্য দাম নিরূপণ করেন।তাদের হিসাব অনুযায়ী বছরে ৩ লাখ ১৩ হাজার টাকা ক্ষতি হতে পারে বাগান মালিক বা ইজারাদারের। ক্ষতির পরিমাণ নির্ধারণের পর তারা রাজশাহী জেলা প্রশাসকের কাছে প্রতিবেদন দেন। গত চারবছর থেকে রাজশাহীর বাঘা উপজেলার খোর্দ্দ বাউসা গ্রামের আমবাগানে শামুকখোল পাখিরা বাসা বেঁধে খাকতে শুরু করে। তারা বর্ষা শেষে এই বাগানে গিয়ে বাচ্চা ফোটায়। শীতের শুরুতে বাচ্চারা উড়তে শিখলে তাদের নিয়ে চলে যায়। এবার পাখিরা বাসা বেঁধে বাচ্চা ফুটিয়েছে। তবে বাচ্চারা এখনও উড়তে শেখেনি। সম্পাদনা : খালিদ আহমেদ




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]