• প্রচ্ছদ » সর্বশেষ » যুবলীগে অনৈতিক কর্মকা-ে জড়িতরা বাদ, আসছেন ক্লিন ইমেজ ও ত্যাগিরা


যুবলীগে অনৈতিক কর্মকা-ে জড়িতরা বাদ, আসছেন ক্লিন ইমেজ ও ত্যাগিরা

আমাদের নতুন সময় : 15/11/2019


সমীরণ রায় : ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের সহযোগি সংগঠন যুবলীগের ৭ম কংগ্রেস আগামী ২৩ নভেম্বর। সঙ্গত কারণে সংগঠনটি নিয়ে চলছে চুলচেড়া বিশ্লেষণ। ইতোমধ্যে ওমর ফারুক চৌধুরীকে সংগঠনটির চেয়ারম্যান পদ থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে। ক্যাসিনো ব্যবসা, টেন্ডারবাজি, চাঁদাবাজি ও অনৈতিক কর্মকা-ের দায়ে ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি ইসমাইল চৌধুরী স¤্রাটসহ খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়া, জিকে শামীমসহ বেশ কয়েকজনকে জেলে পাঠানো হয়েছে। এ প্রেক্ষিতে আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্লিন ইমেইজ, শিক্ষিত, সৎ, ও ত্যাগি নেতা খুঁজছেন।
গত ২০ অক্টোবর গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে বৈঠকে বসে যুবলীগের একটি প্রতিনিধি দল। এ বৈঠক থেকে যুবলীগে ক্লিন ইমেজ ফিরিয়ে আনতে ওমর ফারুক চৌধুরীকে চেয়ারম্যান পদ অব্যাহতি দেয়া হয়। একই সঙ্গে ওই দিন আগামী ২৩ নভেম্বর ৭তম কংগ্রেসকে সামনে রেখে চয়ন ইসলামকে প্রস্তুতি কমিটির আহ্বায়ক ও সাধারণ সম্পাদক হারুনুর রশিদকে সদস্য সচিব করা হয়।
ক্যাসিনো-কা-ে ল-ভ- যুবলীগের ভবিষ্যৎ নিয়ে সংগঠনটির নেতারা আশঙ্কায় দিন কাটাচ্ছেন। ৭ম কংগ্রেস ঘনিয়ে আসলেও কারো কোনো সার শব্দ নেই। তবে ভেতরে ভেতরে আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতাদের দ্বারে দ্বারে ধর্ণা দিচ্ছেন। আগে যেখানে ব্যানার-ফেস্টুন দিয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয় ও দলের সভাপতির ধানম-ির কার্যালয়সহ রাজধানীর বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থানে টাঙিয়ে রাখা হতো। কিন্তু ২৩ নভেম্বর কংগ্রেসকে সামনে রেখেও তেমন কোনো ব্যানার-ফেস্টুন দেখা যাচ্ছে না।
যুবলীগের আগামী নেতৃত্বে যাদের নাম শোনা যাচ্ছে তাদের মধ্যে রয়েছেন- যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান শেখ ফজলুল হক মণির ছেলে শেখ ফজলে শামস পরশ ও তার ছোট ভাই ঢাকা-১০ আসনের সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস, বর্তমান কমিটির সদস্য শেখ ফজলে ফাহিম (শেখ সেলিমের ছেলে), যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মির্জা আজম, বর্তমান প্রেসিডিয়াম সদস্য-শহীদ সেরনিয়াবাত, ফারুক হোসেন, মুজিবুর রহমান চৌধুরী ও ডা. মোখলেছুর রহমান হিরু। আর সাধারণ সম্পাদক পদে যারা আলোচনায় আছেন, তারা হলেন-বর্তমান কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মহিউদ্দিন আহমেদ মহি, সুব্রত পাল, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজুলল হক আতিক, ফারুক হাসান তুহিন, অর্থ সম্পাদক সুভাষ চন্দ্র হালদার, সহ-সম্পাদক তাজউদ্দীন আহমেদ।
যুবলীগের কংগ্রেসের প্রস্তুতি কমিটির আহ্বায়ক চয়ন ইসলাম বলেছেন, আগামী কংগ্রেসের মধ্য দিয়ে আমরা একটা ক্লিন ইমেজের যুবলীগ উপহার দিতে চাই। এটাই আমাদের মূল চ্যালেঞ্চ। আমরা কোনো অনুপ্রবেশকারী ও অনৈতিক কর্মকা-ের সঙ্গে জড়িতদের ছাড় দেবো না। যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মহিউদ্দিন মহি বলেন, যুবলীগকে কলঙ্ক ও কালিমা মুক্ত হোক এটাই চাই। সংগঠনটিতে ত্যাগি, শিক্ষিত, সৎ ও ক্লিন ইমেজের নেতৃত্ব আসুক আমাদের একমাত্র চাওয়া।
যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক আতিক বলেন, যুবলীগ চেয়ারম্যানসহ কিছু নেতা যুবলীগে যে ইমেজ সঙ্কট তৈরি করেছেন। তিনি সংগঠনের আইন অনুযায়ী পরিচালন করতে না। নিজস্ব আইন অনুযায়ী করতেন।
তবে অন্যসময় যুবলীগের কেন্দ্রের আগেই সংগঠনটির উত্তর-দক্ষিনের কংগ্রেস হওয়ার রেওয়াজ রয়েছে। কিন্তু এবার বিষয়টি একটু ভিন্ন। তাই আগামী কেন্দ্রীয় নেতৃত্বই উত্তর-দক্ষিণের কমিটি দেবেন। সম্পাদনা : ইকবাল খান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]