• প্রচ্ছদ » সর্বশেষ » রাজস্থানে এক ব্যক্তি তার মেয়েকে ৭ লাখ রুপিতে বিক্রি করেছে, ৪ মাসের অন্তঃসত্ত্বা অবস্থায় উদ্ধার


রাজস্থানে এক ব্যক্তি তার মেয়েকে ৭ লাখ রুপিতে বিক্রি করেছে, ৪ মাসের অন্তঃসত্ত্বা অবস্থায় উদ্ধার

আমাদের নতুন সময় : 15/11/2019

সাবিহা জামান : ভারতের রাজস্থানে এক ব্যক্তি ৭ লাখ রুপিতে তার ১৩ বছরের মেয়েকে বিক্রি করে দেন বলে জানিয়েছে পুলিশ। গত সোমবার পুলিশ হায়দ্রাবাদ থেকে ওই মেয়েকে উদ্ধার করেছে।
তাকে অপহরণের অভিযোগে পুলিশ দুজনকে গ্রেপ্তার করেছে। পুলিশ আরও জানায়, জুনে ওই মেয়ে নিঁেখাজ হওয়ার পর তার বাবা ও অন্য দুজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। তারা এখনো জেলে। হিন্দুস্থান টাইমস।
বার্মার পুলিশ সুপার শারদ চৌধুরী বলেন, কিশোরীকে তার মায়ের কাছে রাখা হয়েছে। ১৫ নভেম্বর(আজ) ওই কিশোরীকে হাইকোর্টে হাজির করা হবে। সিওয়ানা পুলিশ জানায়, মেয়েটি ৪ মাসের অন্তঃসত্ত্বা।
পুলিশ জানায়, গত ৩০ জুন তার ভাতিজি নিখোঁজ হওয়ার পর অপহরণ ও চাঁদাবাজীর মামলা করেন। ওই ব্যক্তি তার এজাহারে (এফআইআর) গত ২২ জুন স্থানীয় গোপা রাম মালি নামে এক ব্যক্তি কিশোরীর বাবার কাছে জানান, স্বনামধন্য এক পরিবারের ছেলের সঙ্গে বিয়ে ঠিক হয়েছে। চাচা বলেন, তার ভাই তার মেয়েকে নিয়ে বরের পরিবারের সঙ্গে করতে সিওয়ানা যান। কিন্ত যখন ফিরে আসেন কিওশারী কন্যা তার সঙ্গে ছিলো না। মেয়ের বাবা জানায়, সে তার মেয়েকে মামার বাসায় রেখে এসেছেন। ২৬ জুন জানা গেল, সে তার মামার বাসায় নেই, তখন তার বাবা জানান, কয়েকব্যক্তি মিলে তার মেয়েকে অপহরণ করেছে। এর পর কিশোরীর চাচা থানায় সাধারণ ডাইরি করে। পুলিশ যখন ওই কিশোরীকে খঁজে পেতে ব্যর্থ হয়, তখন তার চাচা রাজস্থান হাইকোর্টের দ্বারস্থ হন। সম্পাদনা : ইকবাল খান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]