• প্রচ্ছদ » সর্বশেষ » কীভাবে সৌদি আরবে ৫৩ জন নারীর করুণ মৃত্যুকে খুব নগণ্য মনে হয় একজন মন্ত্রীর?


কীভাবে সৌদি আরবে ৫৩ জন নারীর করুণ মৃত্যুকে খুব নগণ্য মনে হয় একজন মন্ত্রীর?

আমাদের নতুন সময় : 16/11/2019

ড. আসিফ নজরুল
আমি প্রথম বিশ্বাস করিনি। তারপর এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেছি। কিন্তু এ যন্ত্রণা কিছুতে লুকাতে পারছি না। কীভাবে সৌদি আরবে ৫৩ জন নারীর করুণ মৃত্যুকে খুব নগন্য মনে হয় দেশের একজন মন্ত্রীর। কতোবড় অমানুষ হলে এমন কথা বলা সম্ভব। আর কতোবড় অপদার্থ আমরা নিজেরা যে এ কথার পর তার বিচারের দাবীতে ফেটে পরি না একসঙ্গে। মোমেন সাহেব আপনাকে বলছি। আপনার পরিবারেও তো নারী আছে। এদের একজনও যদি অপঘাতে মারা যায় সেদিন কি আপনি বুঝবেন তাদের বেদনা। সৌদী আরবের কোন নরকে বা ভারতের সীমান্তে এদেশের মানুষের মৃত্যু কি একট্ওু বেদনার্ত করবে না তখন আপনাকে? না হলে কিসে বুঝবেন আপনি? এতোবছর উন্নত বিশ্বে থাকলেন, একটুও শিখেননি তাদের থেকে? দেখেননি একজন নাগরিকের জীবনও কতোটা গুরুত্বপূর্ণ তাদের কাছে। নাকি পরচুলোর মতো মেকি আপনার সবকিছু।
নির্বাচিত মন্তব্য : সাব্বির হোসেন- স্যার, ক্ষমা করবেন আমরা বিরুদ্ধাচরণ করতে পারি না, তার জন্য। আমাদের কাছে, আমাদের জীবনের মূল্য সবার আগে। জমিদারী শাসন ব্যবস্থায়, কথা বলার কোনো সুযোগ নেই। আবরার হত্যাকা- আমাদের সে বার্তা দিচ্ছে। আর কিছু না পারি প্রচ- ঘৃণাতো করতে পারি। ষোলো কোটি মানুষের ঘৃণায় একদিন দুঃশাসন ও জমিদার বিলুপ্ত হবে। বাংলার জমিন কোনো ডিকটেটরকে অভয়ারণ্য করতে দেয়নি। হয়তো ভবিষ্যতেও দেবে না। ২. জিয়াদুল হাসান- ক্ষমতার মোহে বোধশক্তি লোভ পেয়েছে। অনেক এমপি আছেন যারা চেয়ারম্যান হওয়ার যোগ্যতা রাখেন না, তারাও আজ ওই মহান পবিত্র সংসদে বসে আছেন। তারা সংসদকে কলঙ্কিত করেছেন। তাদের কাছে এর থেকে বেশি কিছু আশা করাও বোকামি। পেঁয়াজের কেজি দুইশত টাকা তার পরেও বলে সহনীয় পর্যায়ে আছে। ওদের কে এখন জুতা মারা উচিত। আর মারলেই কি হবে কারণ তাদের মানসম্মান আছে বলে তো মনে হচ্ছে না। ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]