বাংলাদেশকে রান পাহাড়ে চাপা দিচ্ছে ভারত

আমাদের নতুন সময় : 16/11/2019

Abu Jayed of Bangladesh appeals during day two of the the 1st Test match between India and Bangladesh held at the Holkar Cricket Stadium, Indore on the 15th November 2019.
Photo by Deepak Malik / Sportzpics for BCCI

এল আর বাদল : বাংলাদেশ দলে নেই সাকিব এবং তামিমের মতো অভিজ্ঞ ক্রিকেটার। তা সত্বেও বঙ্গ ব্রিগেটকে একেবারেই হালকাভাবে নেননি ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি। দল হিসাবে বাংলাদেশকে যেভাবে মূল্যায়ণ করেছিলো ভারতীয়রা, তার ছিটেফোটাও পারফরমেন্স দেখাতে পারছে না টাইগার সেনারা। প্রথমবারের মতো টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের পথ চলাতে দেশবাসীকে আনন্দ দেয়া তো দূরের কথা, ভারতের বিরুদ্ধে মুমিনুলদের অস্তিত্বই বিলিন হওয়ার পথে।
বুধবার টেস্টের প্রথম দিনে ১৫০ রানে ইনিংস গুটিয়ে গেলে ভারত ওই দিনই ব্যাট হাতে ক্রিস গেড়ে বসে। গতকাল ইন্দোরে দ্বিতীয় দিন পর্যন্ত তাদের তাড়াতে পারেনি বাংলাদেশের বোলাররা। দিন শেষে ভারত ৬ উইকেট হারিয়ে আদায় করে নেয় ৪৯৩ রান। ফলে প্রথম ইনিংসে ভারত এগিয়ে আছে ৩৪৩ রানে। দ্বিতীয় দিন শেষে অপরাজিত আছেন রবীন্দ্র জাদেজা (৬০) এবং উমেষ যাদব (২৫)।
ভারতের হয়ে নিজের ক্যারিয়ারের সেরা ইনিংস খেলেন ওপেনার মায়াঙ্ক আগারওয়াল। ব্যক্তিগত ২৪৩ রানে আবু জায়েদ রাহীর শিকার হয়ে ফিরে যান তিনি। বাংলাদেশের হয়ে সর্বোচ্চ চারটি উইকেট তুলে নেন আবু জায়েদ রাহী। আর বাকি দুই উইকেটের মধ্যে পেসার এবাদত নেন একটি এবং মেহেদী হাসান মিরাজ নেন একটি উইকেট।
দিনের শুরুতে ক্যারিয়ারের ২৩তম অর্ধশতক তুলে নেন পূজারা। কিন্তু বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি এই ব্যাটসম্যান। রাহীর বলে স্লিপে দাঁড়ানো সাইফ হাসানের হাতে ক্যাচ তুলে দিয়ে ৫৪ রান করে ফিরে যান তিনি। এরপর উইকেটে আসেন ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি। তবে উইকেটে থিতু হওয়ার আগেই আবু জায়েদ রাহীর বলে এলবিডব্লু’র ফাঁদে পড়ে ফেরেন রানের খাতা শূন্য রেখেই। ২০১৭ সালে হায়দারাবাদে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে একমাত্র টেস্টে ডাবল সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছিলেন বিরাট কোহলি।
এই ব্যাটিং দানবকে হারিয়ে কিছুটা হোঁচট খায় ভারত। তবে সেই হোঁচট কাটিয়ে দলের রানের চাকা সচল রাখেন মায়াঙ্ক আগারওয়াল। আর তাকে সঙ্গ দেন আজিঙ্কা রাহানে। আগারওয়াল তুলে নেন ক্যারিয়ারের তৃতীয় শতক। আর রাহানে তুলে নেন অর্ধশতক। এই দুইয়ে মিলে গড়েন ১৯০ রানের বিশাল জুটি। এরপর নিজের ১৮তম ওভারে রাহানেকে ফিরিয়ে জুটি ভাঙেন রাহী। ৮৬ রান করা রাহানে তাইজুল ইসলামের হাতে ক্যাচ তুলে দিয়ে ফিরে যান। ভারতের প্রথম চার ব্যাটসম্যানকেই ফেরান রাহী।
ক্যারিয়ারের ৮ম টেস্ট খেলতে নেমে বাংলাদেশের বিপক্ষে প্রথম ইনিংসের ৯৯তম ওভারের ৫ম বলে মেহেদী হাসান মিরাজকে ওভার বাউন্ডারি হাঁকিয়ে মায়াঙ্ক পূর্ণ করেন ডাবল সেঞ্চুরি। এরপর ব্যাট হাতে আরও ভয়ংকর হয়ে ওঠেন তিনি। ঝড়ো গতিতেই এগিয়ে যাচ্ছিলেন ক্যারিয়ারের প্রথম আড়াইশত রানের ইনিংসের দিকেই। এর আগে অবশ্য জাদেজার সঙ্গে গড়েন ১২৩ রানের জুটি। ইনিংসের ১০৮তম ওভারের তৃতীয় বলে বাউন্ডারি লাইন থেকে মায়াঙ্কের ক্যাচ ধরেন রাহী। আর এতেই শেষ হয় মায়াঙ্কের ক্যারিয়ার সেরা ২৪৩ রানের ইনিংস।
তবে দিনের শেষ দিকে এসে এবাদত তুলে নেন এই টেস্টে নিজের প্রথম উইকেট। মায়াঙ্ক আউট হয়ে ফিরে গেলে উইকেটে আসেন ঋদ্ধিমান সাহা। আর ইনিংসের ১১১তম ওভারের পঞ্চম বলে ১২ রান করা সাহাকে ক্লিন বোল্ড করে বিদায় করেন এবাদত। সম্পাদনা : ভিক্টর কে. রোজারিও




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]