খাতুনগঞ্জে পেঁয়াজের কেজি একলাফে কমেছে ৭০ টাকা

আমাদের নতুন সময় : 18/11/2019

অনুজ দেব : চারদিন ধরে উত্তাপ ছড়ানোর পর ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা ছেড়ে চট্টগ্রামের বাজারে নামতে শুরু করেছে পেঁয়াজের দাম। ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের আঘাতের পর গত বৃহস্পতিবার থেকে পেঁয়াজের দাম হঠাৎ বেড়ে দুয়েকদিনের মধ্যে দেড়শ থেকে আড়াইশ টাকায় উঠে যায়। তবে গত দু’দিনে খাতুনগঞ্জের পাইকারি বাজারে পেঁয়াজের দাম কেজিতে ৭০ টাকা পর্যন্ত কমেছে বলে আড়তদাররা জানিয়েছেন। গতকাল সোমবার খাতুনগঞ্জের পাইকারী বাজারে ভালো মানের মিয়ানমারের পেঁয়াজ বিক্রি হয়েছে ১৬০ টাকায়। এছাড়া মিশর ও তুরস্কের পেঁয়াজ বিক্রি হয়েছে ১৪০ টাকায়। রোববার মিয়ানমারের পেঁয়াজ ১৮০ টাকা এবং মিশর ও তুরস্কের পেঁয়াজ বিক্রি হয়েছে ১৭০ টাকায়। শুক্র-শনিবারে এসব পেঁয়াজ বিক্রি হয়েছিল ২৩০-২৪০ টাকায় যা খুচরা বাজারে ২৫০ টাকার ওপরে পর্যন্ত পৌঁছায়। তবে খাতুনগঞ্জের আড়তদার সমিতির পক্ষ থেকে মিয়ানমারের পেঁয়াজ ১৪০ টাকা এবং মিশর ও তুরস্কের পেঁয়াজ ১৩০ টাকায় বিক্রি হয়েছে বলে দাবি করা হয়েছে। খাতুনগঞ্জের হামিদুল্লাহ মিয়া বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ ইদ্রিস বলেন, গত কয়েকদিন ধরে বাজারে ক্রেতা নেই। দুই দিনে প্রায় ৭০ টাকা দাম কমে এসেছে। কয়েকদিনের মধ্যে দাম আরও কমে আসবে বলে আশা করছি। উদ্ভিদ নিরোদ কেন্দ্রের উপ-পরিচালক আসাদুজ্জামান বুলবুল বলেন, চট্টগ্রাম বন্দরে গতকাল সোমবার কোনো চালান আসেনি। রোববার এসেছে ৪১৩ মেট্রিক টন পেঁয়াজ। গত ২৯ সেপ্টেম্বর থেকে ১৭ নভেম্বর পর্যন্ত মোট ৬ হাজার পাঁচশ ৫৭ মেট্রিক টন পেঁয়াজ আমদানি হয়েছে। প্রসঙ্গত, ভারত গত সেপ্টেম্বরের শেষের দিকে রপ্তানি বন্ধ করার পর থেকে পেঁয়াজের দাম হঠাৎ অস্বাভাবিকভাবে বেড়ে যায়। গত ১১ নভেম্বর ঘূর্ণিঝড়ের পর দাম বেড়ে তা আড়াইশ টাকায় উঠে যায়। সম্পাদনা : মুরাদ হাসান, ওমর ফারুক




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]