• প্রচ্ছদ » সর্বশেষ » দুদিনেও চট্টগ্রামে বিস্ফোরণের প্রকৃত কারণ জানা যায়নি ভবন মালিকের বিরুদ্ধে মামলা, নিহতদের পরিবারে আহাজারি


দুদিনেও চট্টগ্রামে বিস্ফোরণের প্রকৃত কারণ জানা যায়নি ভবন মালিকের বিরুদ্ধে মামলা, নিহতদের পরিবারে আহাজারি

আমাদের নতুন সময় : 18/11/2019


রাজু চৌধুরী ও শহীদুল ইসলাম : চট্টগ্রাম নগরীর পাথরঘাটার ব্রিক ফিল্ড রোডের বিস্ফোরণের কারণ প্রাথমিকভাবে সবাই গ্যাসলাইনে লিক হওয়াকে দায়ী করলেও গত রোববার দুপুরে ও বিকালে দুই দফা ঘটনাস্থল পরিদর্শন, আলামত সংগ্রহ, ছবি ও ভিডিও বিশ্লেষণ করে কেজিডিসিএলের মহাব্যবস্থাপক প্রকৌশলী সৈয়দ আবু নসর মো. সালেহ বলেন, চুলার ওপর পাতিল এবং সেই পাতিলে এখনো তরকারি অক্ষত আছে। দেয়ালে টাঙানো রশিতে ঝুলছে কাপড়। রান্নাঘরে গ্যাসের জিআই লাইন অক্ষত। কোনোভাবেই এটি গ্যাসলাইন লিকেজের অগ্নিকা- নয়, কারণ এই বিস্ফোরণটা শক্তিশালী। তিনি সাংবাদিকদের বলেন, আমরা দেখেছি সেপটিক ট্যাংকের ঢাকনা উড়ে গেছে। ওই ট্যাংক থেকেই বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটতে পারে। কেজিডিসিএল ৪ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে। তিনি আর ও বলেন, প্রাথমিকভাবে আমরা বলতে পারি, গ্যাসলাইন লিকেজ থেকে এ ঘটনা ঘটেনি। তবে রাতে ফায়ার সার্ভিসের একজন কর্মকর্তার মতে, গ্যাসলাইনের রাইজারটা ছিল মরিচায় ভরা। এ রাইজার থেকেও গ্যাস লিক হয়ে বাসার ভেতরে গ্যাস চেম্বারে পরিণত হতে পারে। পরে কেউ আগুন জ্বালানোর চেষ্টার পরই বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটতে পারে।
সিএমপির অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (দক্ষিণ) শাহ মো. আব্দুর রউফ বিস্ফোরণে আহত অর্পিতা নাথের সঙ্গে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে কথা বলার পর বলেন, ওই বাসায় দিয়াশলাইয়ের কাঠি জ্বালানোর সঙ্গে সঙ্গে বিস্ফোরণ হয়েছে। তবে তদন্তের পূর্ণাঙ্গ প্রতিবেদন না পাওয়া পর্যন্ত বিস্ফোরণের প্রকৃত কারণ বলা সম্ভব নয়। গতকাল সোমবার বিস্ফোরণে সাতজন নিহতের ঘটনায় বড়ুয়া ভবনের মালিককে আসামি করে কোতোয়ালি থানায় মামলা দায়ের করেন নিহত মাহমুদুল হকের (৩০) স্ত্রী শাহীন আকতার। ভবন মালিকরা হলেন, অমল বড়ুয়া ও টিটু বড়ুয়া। মামলা দায়েরের বিষয়টি কোতোয়ালি থানার ওসি মোহাম্মদ মহসীন নিশ্চিত করে বলেন, বিস্ফোরণে নিহত মাহমুদুল হকের স্ত্রী শাহীন আকতার একটি মামলা দায়ের করেন। তবে তদন্তের স্বার্থে বিস্তারিত তথ্য প্রদানে অপারগতা প্রকাশ করেন তিনি। এদিকে, বিস্ফোরণে নিহতদের পরিবারে এখনো চলছে শোকের মাতম। স্ত্রী ও বড় ছেলে নাম বলতেই বারবার মূর্ছা যাচ্ছিলেন অ্যাডভোকেট আতাউর রহমান। পাশে বসে থাকা ছোট ছেলে আতিফুর রহমান (৫) বাবার কাছে একটু পরপর জানতে চায় মা কোথায়, আমি মার কাছে যাবো এসময় সান্ত¡না দিতে আসা লোকজনও কান্নায় ভেঙে পড়েন। বিস্ফোরণে নিহত ৭ জনের মধ্যে ভবনের দেয়াল চাপায় নিহত হন আতাউর রহমানের স্ত্রী জুলেখা বেগম ফারজানা (৩২) ও বড় ছেলে আতিকুর রহমান শুভ (১০)। রোববার রাতে সাতকানিয়া উপজেলার কালিয়াইশ ইউনিয়নের মাস্টার হাট এলাকায় বাড়িতে চলছে শোকের মাতম। বিস্ফোরণে নিহত এ্যানি বড়ুয়া (৩৫) এর পটিয়া উপজেলার জঙ্গলখাইন ইউনিয়নের উনাইনপুরা গ্রামের মাস্টার বাড়িতেও চলছে আহাজারি। সম্পাদনা : মুরাদ হাসান, ওমর ফারুক




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]