নাগরিক জীবনে কমেছে পেঁয়াজের ব্যবহার

আমাদের নতুন সময় : 18/11/2019

লাইজুল ইসলাম : প্রতিদিনের রান্নায় পেঁয়াজ একটি অপরিহার্য উপাদান। কিন্তু এখন বেশ বিপাকে পড়তে হয় রান্না করতে গিয়ে। চাহিদামত পেঁয়াজ ব্যবহার করা যায় না। অতিরিক্ত দামের কারণে পেঁয়াজ কেনা কমিয়ে দিয়েছি। সকালে কারওয়ান বাজারে এক গৃহিনী শাহিনা আক্তার এমনটাই জানিয়েছেন। তিনি বলেন, বাজারের ওপর কারোই কোনো হস্তক্ষেপ নেই। যার কারণে এভাবে দাম বেড়েই চলেছে।
গত চার মাসে ২৫ টাকার পেঁয়াজের দাম ধাপে ধাপে বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৫০ টাকায়। দাম বৃদ্ধির এই চক্রে পরে প্রথম দিকে বেশ বিপাকেই ছিলো দেশবাসী। কারওয়ান বাজারের খুচরা ও পাইকারি আরতে পেঁয়াজের কমতি নেই। কিন্ত সেই তুলনায় দাম কমেনি বলে জানান এক ক্রেতা। ২৫০ গ্রাম পেঁয়াজ কিনেছেন। তিনি বলেন, আপাতত পেঁয়াজ কম কিনছি ও খাচ্ছি। বাজারে এসেছেন দুই ভাই। তারা ব্যাচেলর বাসায় থাকেন। পেঁয়াজের কথা বলতেই তেলে বেগুনে জ্বলে উঠলেন। তারা বলেন, কোনো কিছুই কাজ হচ্ছে না। ভ্রাম্যমান আদালত চালিয়েও পেঁয়াজের দাম কমাতে পারেনি সরকার। এখন আমরাই পথ বেছে নিয়েছি। যত দিন দাম না কমবে পেঁয়াজ প্রয়োজনে খাবো না।
এসব কথার মধ্যে কারওয়ান বাজারের খুচরা ব্যবসায়ী বলেন, মামা পেঁয়াজ গত কয়েকদিন ধরে বিক্রি হচ্ছে কম। যারা পাঁচ কেজি পেঁয়াজ নিতেন, তারা এখন আধাকেজি পেঁয়াজ কিনছেন। তিনি হাস্যরস করে বলেন, পেঁয়াজ ছাড়া কি তরকারি রান্না হবে। এদিকে, পেঁয়াজ বিক্রি না হওয়ায় বিপাকে আছেন দেশের মুনাফা লোভী ব্যবসায়ীরা। সম্পাদনা : রমাপ্রসাদ বাবু




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]