দাদাগিরিতে ভূতের গল্প, আদালতে মামলা

আমাদের নতুন সময় : 21/11/2019


জান্নাত জুঁই : ভারতীয় চ্যানেল জি বাংলার জনপ্রিয় অনুষ্ঠান দাদাগিরি। সেখানে অবৈজ্ঞানিক ও কুসংস্কারমূলক ভাবনার প্রচার করা হয়েছে এমনই অভিযোগ তুলেছে পশ্চিমবঙ্গ বিজ্ঞান মঞ্চ। স্থানীয় সংবাদমাধ্যম এই সময় জানায়, ‘দাদাগিরি’র বিশেষ একটি পর্ব প্রচারের আগেই আদালতে মামলা দায়ের হয়েছে। আর প্রচারের পর সেই মামলার সঙ্গেই বেশ কিছু তথ্য সংযোজন করা হয়েছে। তাদের দাবি, ভারতীয় সংবিধানের ৫১এ এইচ ধারা লঙ্ঘন করা হয়েছে দাদাগিরি অনুষ্ঠানে। এই ধারায় ভারতীয়দের মধ্যে বিজ্ঞানমনস্কতা ও যুক্তিবোধ গড়ে তোলার কথা বলা হয়েছে। এই ধরনের অবৈজ্ঞানিক ও কুসংস্কারমূলক অনুষ্ঠানের তীব্র নিন্দা করছে। তারা মনে করে কুসংস্কারমূলক ধ্যান ধারণার সম্প্রচারকারী অনুষ্ঠানটি ম্যাজিক রেমিডিজ অ্যান্ড অবজেকশনেবেল অ্যাডভার্টাইজমেন্ট এ্যাক্টকে সরাসরি লঙ্ঘন করেছে।
দাদাগিরির একটি পর্বে এক নারী প্রতিযোগী বলেন, আমরা কয়েকজন সদস্য মিলে ভূতের অস্তিত্বের সন্ধান করে থাকি। সে প্রসঙ্গেই একটি ভূতুড়ে অভিজ্ঞতা শেয়ার করেন তিনি। নিজের ভৌতিক অভিজ্ঞতা ভাগ নিয়েছেন ভারতের জনপ্রিয় ক্রিকেটার ও দাদাগিরির উপস্থাপক সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ও। এ ক্ষেত্রে ওই নারী প্রতিযোগীর দাবির সঙ্গে সহমত পোষণ করতে দেখা যায় এই ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের নতুন প্রেসিডেন্টকেও।
ঘটনার পরপরই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অনেকে বিষয়টি নিয়ে সরব হন। এতে যুক্তিবাদী ভাবনায় আঘাত লাগতে পারে বলে অভিযোগ তোলেন অনেকে। সৌরভের মতো একজন রোল মডেল কী করে এমন ভাবনাকে ইন্ধন দিচ্ছেন তা নিয়েও মতোবাদ করেন অনেকে।
পশ্চিমবঙ্গ বিজ্ঞান মঞ্চ কুসংস্কার মূলক ভাবনার প্রচার ও প্রসার, বিজ্ঞাপন ও ব্যবসার বিরুদ্ধে এ রাজ্যের জন্য একটি সুসংহত আইন প্রণয়নের দাবিতে মামলা করেছে। সম্পাদনা : রমাপ্রসাদ বাবু




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]