• প্রচ্ছদ » » নারী সমাজ, দুনিয়ায় এক শতাংশ সম্পদ হাতে নিয়ে অন্তত অর্থনৈতিকভাবে নিজেদের পিছিয়ে থাকা স্বীকার না করতে চাওয়াটা বেয়াকুবি


নারী সমাজ, দুনিয়ায় এক শতাংশ সম্পদ হাতে নিয়ে অন্তত অর্থনৈতিকভাবে নিজেদের পিছিয়ে থাকা স্বীকার না করতে চাওয়াটা বেয়াকুবি

আমাদের নতুন সময় : 30/11/2019

জান্নাতুন নাঈম প্রীতি

আমি পুরুষদের সঙ্গে বসে আড্ডা দিতে গিয়ে কালেভাদ্রে দুই চাইর পেগ মদ খাই। কিন্তু কখনো সেই মদ খাওয়াকে স্বাস্থ্যকর বলে প্রচার করি না। বাংলাদেশের বেকুব শ্রেণির নারীরা তাদের গয়না নিয়ে আলাপটাকেই মনে করেন যথার্থ আলাপ, এর বাইরে আলাপ হইতে পারে না। সমস্যাটা এইখানে। আপনি শাড়ি, চুড়ি, গয়না,লাইনার, শাইনার নিয়ে ঘণ্টার পর ঘণ্টা আড্ডা দিতে পারেন, এটা সমস্যা নয়। কিন্তু ‘যখন আমি গয়না পরেও কাজ করি, বিধায় গয়না বিষয়ক আলোচনাই সব সাফল্যের মূলমন্ত্র এবং সেই আলোচনা নারী হিসেবে বুদ্ধিবৃত্তিক উন্নতির প্রকাশ করে’ বলে প্রচার করেন তখন সেটা বেয়াকুবি। ছেলেমানুষী আর মেয়েমানুষীর সংজ্ঞা কেডা আপনার মাথায় ঢুকিয়েছে ভাবেন। আপনি কেন পুতুল মেয়েদের খেলা আর ক্রিকেট ছেলেদের খেলা ভাবতেছেন, কেন আড্ডা দিতে গেলে নারী কোরাম করতেছেন, কেন আপনার নারী কোরামের আড্ডায় কেবল নেকলেস আর কার বাচ্চা কেমন, কার স্বামী কারে কি দিলো সেই জিনিসই বারবার আসতেছেÑ তাও ভাবেন। আপনার দেশের প্রধানমন্ত্রী নারী, বিরোধীদলের প্রধান নারী মানেই যে ক্ষমতা নারীর হাতে ঘটনাটা সত্য নয়। সত্য হইলো এতো নারী থেকেও ‘তনুকে ভালুকে খেয়েছে’ জাতীয় প্রতিবেদন পাওয়া, রেপড নারীদের চরিত্র নিয়ে প্রশ্ন ওঠা। বাপের লেজ, স্বামীর লেজ ধরে কেউ ক্ষমতায় আসলে এবং অমুকের কন্যা, তমুকের স্ত্রী বলে প্রচারিত নারী নারীর ক্ষমতায়নের রোল মডেল নয়। বেয়াকুব এবং অপরাধীর কোনো জেন্ডার নাই। নারী হইলেও বা পুরুষ হইলেও আইনের চোখে সবাই সমান। তাই নারী সমাজ, দুনিয়ায় এক শতাংশ সম্পদ হাতে নিয়ে অন্তত অর্থনৈতিকভাবে নিজেদের পিছিয়ে থাকা স্বীকার না করতে চাওয়াটা বেয়াকুবি। আপনি যে পুরুষের তুলনায় কাজেকর্মে পিছায়ে আছেন এবং বেয়াকুবির নিদর্শন হিসেবে মার খাচ্ছেন সেইটা আপনার এগিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে, সমস্যা সমাধানের জন্য প্রথমে স্বীকার করা জরুরি। রোগের কাছে লজ্জার কিছু নাই, রোগ লুকানোর এবং লুকাইয়া সেই রোগকে ক্যান্সার বানানোর প্রাণান্তকর চেষ্টায় লজ্জা আছে। এটা বুঝবেন কবে? ঈষৎ সংক্ষেপিত। ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]