• প্রচ্ছদ » শেষ পাতা » বিজিএমইএ ভবন আপাতত ভাঙা হচ্ছে না, ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান সরে গেছে


বিজিএমইএ ভবন আপাতত ভাঙা হচ্ছে না, ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান সরে গেছে

আমাদের নতুন সময় : 02/12/2019


সুজিৎ নন্দী : বিজিএমইএ ভবন ভাঙা থেকে পিছিয়ে গেছে সর্বোচ্চ দরদাতা সালাম অ্যান্ড ব্রাদার্স। কিন্তু ওই ভবন থেকে লিফট, এসিসহ মূল্যবান সব সামগ্রী নিয়ে যেতে দেয়ার কারণে এ জটিলতার সৃষ্টি হয়। এখন যেহেতু লিফট, এসিসহ অনেক মূল্যবান সামগ্রী নেই, সে কারণে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান আগে তাদের দেয়া দর কমানোর দাবি জানাচ্ছে। কিন্তু রাজউক বলছে, দর কমানো সম্ভব নয়। প্রয়োজনে পুনঃদরপত্র আহ্বান করা হবে। যে কারণে ভবন ভাঙার বিষয়ে কিছুটা জটিলতার সৃষ্টি হয়েছে। তবে রাজউকের চেয়ারম্যান ড. সুলতান আহমেদ বলেন, বিজিএমইএ ভবন ভাঙা হচ্ছে। তবে সময় একটু বেশি লাগতে পারে।
রাজউকের প্রধান প্রকৌশলী রায়হানুল ফেরদৌস বলেন, ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান ফোর স্টার এন্টারপ্রাইজ আগের দর কমিয়ে নেয়ার দাবি করছে। কিন্তু তা আর সম্ভব নয়। সব ঠিকঠাক থাকলে তাড়াতাড়ি বিজিএমইএ ভবন ভাঙার কাজ শুরু করতে হবে।
ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের একাধিক কর্মকর্তা বলেন, বিজিএমইএ ভবন থেকে লিফট, এসিসহ মালামাল সরিয়ে নেয়া হয়েছে, তাই কাজের দাম নিয়ে আলোচনা হয়েছে। দুপক্ষের মধ্যে সমঝোতা বা কোনো সিদ্ধান্ত না হয় তাহলে রাজউক আবার নতুন করে দরপত্র আহ্বান করবে বলে জানিয়ে দিয়েছে। সে ক্ষেত্রে বিজিএমইএ ভবন ভাঙার কাজ শুরু হতে আরও দেরি হতে পারে।
বিজিএমইএ ভবন ভাঙার জন্য দরপত্র আহ্বান করার পর সর্বোচ্চ দরদাতা হিসেবে ভবনটি ভাঙতে কাজ পেয়েছিল সালাম অ্যান্ড ব্রাদার্স নামে একটি প্রতিষ্ঠান। তাদের দরপত্র ছিল ১ কোটি ৭০ লাখ টাকার। সে অনুযায়ী তাদের কার্যাদেশও দেয়া হয়েছিল। কিন্তু শেষ মুহূর্তে এসে ভবন ভাঙার কার্যক্রম থেকে সরে দাঁড়ায় মেসার্স সালাম অ্যান্ড ব্রাদার্স। যদিও শেষ মুহুর্তে সরে যাওয়ায় সালাম অ্যান্ড ব্রাদার্সের থেকে ১০ শতাংশ হারে টাকা কেটে নিয়েছে রাজউক।
তারা এ ভবন ভাঙার কার্যক্রম থেকে সরে আসার পর দ্বিতীয় সর্বোচ্চ দরদাতা প্রতিষ্ঠান চট্টগ্রামের ফোর স্টার গ্রুপকে কাজটি দেয় রাজউক। ফোর স্টার গ্রুপের দরপত্র ১ কোটি ৫৫ লাখ ৭০ হাজার টাকার। এই টাকার বিনিময়ে ভবনটির সব মালামাল ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের পাওয়ার কথা। কিন্তু সূত্র জানায়, কিন্তু বাস্তবে সেটি না হওয়ায় ভবন ভাঙার বিষয় নিয়ে কিছুটা জটিলতার সৃষ্টি হয়েছে। সম্পাদনা : ইকবাল খান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]