দেবেন্দ্র ফডনবীসের শপথ ছিলো ৪০ হাজার কোটি রুপি রক্ষায় নাটক, দাবি বিজেপি নেতার

আমাদের নতুন সময় : 03/12/2019

আসিফুজ্জামান পৃথিল : বিজেপি নেতা অনন্ত কুমার হেগড়ের এই দাবিতে অস্বস্তিতে পড়েছে দলটি। তিনি বলছেন, এই অর্থ নিরাপদে কেন্দ্রে পাঠানোর জন্যই নাটক সাজানো হয়েছিলো। কর্নাটকের এই এমপির দাবি, শপথের ১৫ ঘন্টার মধ্যেই অর্থ ফেরত পাঠান ৮০ ঘন্টার মুখ্যমন্ত্রী ফডনবীস। এনডিটিভি।
একটি উপ নির্বাচনের প্রচারণায় হেগড়ে বলেন, ‘আপনারা জানেন, সম্প্রতি মাত্র ৮০ ঘন্টার জন্য মহারাষ্ট্রে একজন মুখ্যমন্ত্রী হয়েছিলেন। অবশ্য ফডনবীস দ্রুতই পদত্যাগ করেন। কিন্তু কেনো এই নাটক করতে হলো? আমাদের সংখ্যাগরিষ্ঠতা ছিলোনা, তবে তিনি কেনো শপথ নিলেন? সবাই এই প্রশ্ন করছে। ৪০ হাজার কোটি রুপির বেশি মুখ্যমন্ত্রীর নিয়ন্ত্রণে ছিলো। যদি এনসিপি, কংগ্রেস ও শিবসেনা সম্মিলিতভাবে ক্ষমতায় আসে, তবে সেগুলো উন্নয়ন কাজে ব্যবহার না হয়ে অপব্যবহার হতো। আগেই এটি পরিকল্পনা হয়েছিলো। এই নাটকের প্রয়োজন ছিলো। এ কারণেই তিনি দায়িত্ব নেন। এই ১৫ ঘন্টায় ফডনবীশ নিশ্চিত করেছেন, যেনো এই অর্থ নিরাপদে চলে যায়। এটি আবারও কেন্দ্রে ফিরে গেছে।’
এই অভিযোগ অস্বীকার করে ফডনবীস বলেন, ‘এরকম কিছুই হয়নি। এগুলো মিথ্যে অভিযোগ। আমি শপথ নেয়ার পরে কোনও নীতি নির্ধারনী সিদ্ধান্ত নেইনি। সরকারের অর্থ বিভাগ এই দাবির বিষয়ে চাইলে তদন্ত করতে পারে।’ সাবেক মুখ্যমন্ত্রী তার সরকারের নেয়া বুলেট ট্রেন প্রকল্পের উদাহরণ দেন। যা নতুন সরকার বাতিল করবে বলে জানিয়েছে। তিনি বলেন, ‘কেন্দ্র সরকারের একটি কোম্পানি বুলেট ট্রেন প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে। এখানে মহারাষ্ট্র সরকারের শুধুই ভুমি অধিগ্রহণের কথা ছিলো। কেন্দ্র সরকার তা ফেরত চায়নি, আমরাও পাঠাইনি। কোনও প্রকল্প থেকে মহারাষ্ট্র সরকারের একটি রুপিও কেন্দ্রে ফেরত যায়নি।’ সম্পাদনা : ইকবাল খান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]