ইরাকের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে তীব্র সরকারবিরোধী আন্দোলন

আমাদের নতুন সময় : 04/12/2019

হাসনাত কুশল : গত অক্টোবরে ইরাকের তাহরির স্কয়ারে দেশটির সরকারের ক্রমবর্ধমান দুর্নীতি ও সীমাহীন স্বজনপ্রীতি, স্ফীত বেকারত্ব এবং নি¤œমানের অর্থনৈতিক পরিষেবা ও অর্থনৈতিক মন্দার প্রতিবাদে বিক্ষোভ শুরু হয়। ক্রমেই এ বিক্ষোভ সরকারবিরোধী আন্দোলনের রূপ নেয়। এতে সহিংস হয়ে ওঠে দেশটির রাজনৈতিক পরিস্থিতি। দুই মাস ব্যাপী এ বিক্ষোভে অংশ নিয়েছিলেন আমেরের মতো অসংখ্য বিক্ষোভকারী। এসময় আমের নিরাপত্তা বাহিনীর সংঘর্ষে নিহত হন। এ খবরে তার আরেক বন্ধু তিবা (২৩) অনুপ্রাণিত হন এবং যখন তিনি বিক্ষোভে নিহতদের কথা স্মরণ করেন, তখন তার মনে দেশের জন্য কর্তব্যবোধ জন্ম নেয় বলে আলজাজিরাকে জানান।
দুই মাস ব্যাপী বিক্ষোভে এ দুই বন্ধুর মতো আরও অনেক বিক্ষোভকারী অংশ নেয়। রোববার দেশটির প্রধানমন্ত্রী আদিল আবদেল মাহদির পদত্যাগের পর পার্লামেন্টে তা অনুমোদন দেয়া হয় এবং অন্তর্বর্তীকালীন সরকার প্রধান হিসেবে মাহদিকেই কাজ চালিয়ে যেতে বলা হয়। তবে বিক্ষোভকারীরা দেশটির রাজনৈতিক সংস্কারের দাবিতে অটল অবস্থান ব্যক্ত করে বিক্ষোভ অব্যাহত রেখেছে। ২৫ অক্টোবর দেশটির সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা রাজধানী বাগদাদ ও দক্ষিণাঞ্চলের অন্যান্য শহরগুলোতে মাহদির বিরুদ্ধে দৃঢ় অবস্থান নেয়। এখন পর্যন্ত ৪২০ বিক্ষোভকারী নিহত এবং পাঁচ হাজার আহত হয়েছে। এসময় তিবা বলেন, দেশটির সরকার ও রাজনৈতিক ব্যবস্থার বিরুদ্ধে এ দৃঢ় অবস্থান যদি অব্যাহত থাকে তাহলে সরকার সাড়া দেবে। তিনি আরও জানান, দেশটির বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসগুলোতে কয়েক সপ্তাহ ধরেন বিক্ষোভকারীদের ক্লাস বর্জন কর্মসূচি চলছে। সম্পাদনা : ইকবাল খান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]