• প্রচ্ছদ » শেষ পাতা » নোম্যান্স ল্যান্ডে অবৈধ চৌকি সরিয়ে নিতে পাঁচদিন সময় চেয়েছে বিএসএফ


নোম্যান্স ল্যান্ডে অবৈধ চৌকি সরিয়ে নিতে পাঁচদিন সময় চেয়েছে বিএসএফ

আমাদের নতুন সময় : 04/12/2019

 

মঈন উদ্দীন : রাজশাহীর বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তের নো-ম্যান্স ল্যান্ডে অবৈধভাবে চৌকি বসানোর ঘটনায় দুই বাহিনীর পক্ষ থেকে গতকাল মঙ্গলবার সীমানা চিহ্নিত করা হয়েছে। এতে দেখা গেছে, যেখানে চৌকি স্থাপন করা হয়েছে সেটি নো-ম্যান্স ল্যান্ড। বিজিবির পক্ষ থেকে এর প্রতিবাদ জানানো হয়েছে। এ সময় চৌকি সরিয়ে নেয়ার জন্য বিএসএফ পাঁচ দিন সময় চেয়েছে।
বিজিবির রাজশাহীর ১ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল ফেরদৌস জিয়াউদ্দিন মাহমুদ জানান, বিষয়টি নিয়ে মঙ্গলবার সকালে সাহেবনগর সীমান্তে বিজিবি-বিএসএফের কোম্পানী কমান্ডার পর্যায়ে পতাকা বৈঠক হয়েছে। সেখানে দুই দেশের বাহিনী এলাকাটির সীমানা চিহ্নিতও করেছে। এতে দেখা যায়, বিএসএফ নো-ম্যান্স ল্যান্ডে এই চৌকি স্থাপন করেছে। এ সময় বিজিবির পক্ষ থেকে এর কড়া প্রতিবাদ জানানো হলে চৌকি সরিয়ে নেয়ার জন্য বিএসএফ পাঁচদিন সময় চেয়েছে।
প্রসঙ্গত, গত শুক্রবার দিবাগত রাতে উপজেলার সাহেবনগর সীমান্তে বিএসএফ এ চৌকি বসায়। এ ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানায় বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)। জানা গেছে, বিজিবির সাহেবনগর সীমান্ত ফাঁড়ির এক কিলোমিটার পূর্ব দিকে পদ্মা নদী থেকে বের হয়ে একটি কাটা নদী উত্তর থেকে দক্ষিণমুখী হয়ে ভারতের মুর্শিদাবাদ জেলার চরলবণগোলা এলাকায় ঢুকেছে। নো-ম্যান্স ল্যান্ড সংলগ্ন চরটিতে গিয়ে কিছুদিন ধরে বিজিবি সদস্যরা টহল দিতেন। সম্পাদনা : মুরাদ হাসান, ওমর ফারুক




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]