চলমান দ্বন্দের মধ্যেই স্বাক্ষাৎ করলেন ন্যাটো নেতারা

আমাদের নতুন সময় : 05/12/2019


আসিফুজ্জামান পৃথিল : ৩ ঘন্টার এই বৈঠকের প্রধান আলোচ্য ছিলো সাইবার নিরাপত্তা আর চীনের কারণে সৃষ্টি হওয়া কৌশলগত চ্যালেঞ্জ। ৭০ বছর বয়সী প্রতিষ্ঠানটি সম্প্রতি বড় ধরণের দ্বন্দের মধ্যে জড়িেিয়ছে। একে অপরের সমালোচনা করতে ছাড়ছেন না শীর্ষ নেতারা। বিবিসি,সিএনএন
উদ্বোধনী ভাষণে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীবরিস জনসন সকল নেতাকে মনে করিয়ে দেন, ন্যাটোর নীতি একজন সকলের জন্য, সবলে একজনের জন্য। এর আগে মঙ্গলবার সম্মেলনের শুরুর দিনই বেশ কিছু বিষয়ে মার্কিন ও ফ্রেঞ্চ নেতাদের তিক্ত বাক্যবিনিময় হয়। শুরু থেকেই এই সম্মেলনে ঐক্যের ডাক দেয়া হলেও শেষ পর্যন্ত আর তা বজায় থাকেনি। বিবিসির প্রতিরক্ষা করসপন্ডেন্ট জোনাথন বিয়ালে বলেছেন, ন্যাটোর নেতারা তাদের গভীর মতপার্থক্য লুকিয়ে রাখতে ব্যর্থ হয়েছেন। তবে তিনি মনে করেন, ২৯ সদস্য রাষ্ট্রের এই জোটের ভবিষ্যত নিয়ে খুব একটা শঙ্কা নেই। তবে তুরস্ক কতোদিন এর সদস্য থাকবে, সে প্রশ্ন আছে বলে মনে করেন তিনি।

এদিকে একটি ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে দেখা গেছে বিশ^নেতারা সবাই ট্রাম্পকে নকল করে তাকে নিয়ে হাসাহাসি করছেন। মঙ্গলবার বাকিংহাম প্যালেসের এক অভ্যর্থনা অনুষ্ঠানে এই ঘটনা ঘটে। এই ভিডিওতে ছিলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন, ফরাসী প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাঁক্রো, কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো আর ডাচ প্রধানমন্ত্রী মার্ক র্যুটে। ২৫ সেকেন্ডের ভিডিওতে দেখা যায় ম্যাঁক্রো দেরিতে আসায় জনসন বলছেন, তোমার দেরী হলো কেনো? এর জবাবে ট্রুডো বলেন, তিনি মনে হয় ৪০ মিনিট ধরে সংবাদ সম্মেলন করছিলেন! এই ভিডিওতে ট্রাম্পের নাম উল্লেখ না করা হলেও, বিশ^নেতাদের ইঙ্গিত ছিলো ট্রাম্পের দীর্ঘসময় ধরে সংবাদ সম্মেলনের প্রতি। সম্পাদনা : ইকবাল খান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]