• প্রচ্ছদ » সর্বশেষ » নিজেকে ভগবান দাবিধারী ধর্ষক নিত্যানন্দ মনে করেন, কোনও বিচারব্যবস্থা তাকে স্পর্শ করতে পারবে না


নিজেকে ভগবান দাবিধারী ধর্ষক নিত্যানন্দ মনে করেন, কোনও বিচারব্যবস্থা তাকে স্পর্শ করতে পারবে না

আমাদের নতুন সময় : 05/12/2019

আসিফুজ্জামান পৃথিল : দেশের নাম কৈলাশ। প্রধানমন্ত্রী আছেন, আছে মন্ত্রী পরিষদও। আছে জাতীয় সঙ্গীত। তবে সে দেশতে কোনও মানচিত্রে খুঁজে পাওয়া যাবে না। এই দেশের প্রতিষ্ঠাতার নাম স্বামী নিত্যানন্দ। ধর্ষণের অভিযোগে যাকে হন্যে হয়ে খুঁজে বেড়াচ্ছে গুজরাট পুলিশ। একটি ওয়েবসাইটে এই রাষ্ট্রের জন্য চাওয়া হয়েছে নাগরিক ও অনুদান। নাগরিকত্বের শর্ত একটাই। আপনাকে হতে হবে স্বাত্তিক হিন্দু! নিউ ব্রিকস, স্ক্রল
জানা গেছে এই মুহুর্তে দক্ষিণ আমেরিকার দেশ ইকুয়েডরে অবস্থান করছেন স্বামী নিত্যানন্দ। তার সঙ্গে রয়েছেন ৫০ জন তরুণী দেবদাসী। যারা সর্বদাই দেবতার সেবায় লিপ্ত। মজার বিষয় হলো নিত্যানন্দ জাতিসংঘে আবেদন করেছেন, হিন্দুরা ভারতে স্বাধীনভাবে নিজ ধর্ম পালন করতে পারছে না। তাই ইকুয়েডরের একটি দ্বীপে তিনি নিজস্ব রাষ্ট্র চান। জাতিসংঘের কর্মকর্তারা বিষয়টি নিয়ে তদন্ত ও অনুসন্ধানও শুরু করেছেন। জাতিসংঘের স্বীকৃতি আদায়ে নিয়োগ দিয়েছেন একটি মার্কিন কোম্পানিকেও।
যেই মেয়েরা এই স্বঘোষিত ভগবানের সঙ্গে আছেন, তাদের ২ জনের বাবা জনার্ধন শর্মা। তিনি নিত্যানন্দের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন। গুজরাট হাইকোর্ট রাজ্য পুলিশকে নির্দেশ দিয়েছে, যেনো ইন্টারপোলের সহায়তা নিয়ে নিত্যানন্দকে ভারতে ফিরিয়ে আনা হয়। ভারতে না থাকলেও সামাজিক মাধ্যমে খুবই সক্রিয় নিত্যানন্দ। নিয়মিতই তিনি ভারতের বিচার ব্যবস্থা নিয়ে হাসাহাসি করছেন। আর যদি জাতিসংঘ কৈলাসকে রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েই দেয়, তবে গুজরাট পুলিশের তাকে গ্রেপ্তারে তার সরকারেই অনুমতি লাগবে। যা পাওয়া যাবে না নিশ্চিতভাবেই।
নিত্যানন্দের ওয়েবসাইটের তথ্য অনুযায়ী, এই হিন্দু রাষ্ট্রের নিজস্ব পতাকার নাম ঋষভ ধ্বজা, যাতে নিত্যানন্দের নিজের ও হিন্দু দেবতা শিবের বাহন নন্দীর ছবি রয়েছে। ওয়েবসাইটে আরও উল্লেখ করা হয়, কৈলাশে শিক্ষা, রাজস্ব ও বাণিজ্যসহ সরকারি নানা বিভাগ আছে। সনাতন ধর্মকে পুনরুউজ্জীবিত করার জন্য রয়েছে ডিপার্টমেন্ট অব এনলাইটেনড সিভিলাইজেশন নামের একটি আলাদা বিভাগ। তথাকথিতএই দেশে ধার্মিক অর্থনৈতিক ব্যবস্থায় হিন্দু ইনভেস্টমেন্ট অ্যান্ড রিজার্ভ ব্যাংক আছে বলে দাবি করা হয়েছে, যেখানে ক্রিপ্টোকারেন্সি চলে। নিত্যানন্দের বিরুদ্ধে কর্ণাটক রাজ্যে একটি ধর্ষণের মামলা রয়েছে। পাশাপাশি তার আহমেদাবাদের আশ্রমে শিশুদের আটকে রেখে জোর করে টাকা সংগ্রহের কাজে লাগানোর অভিযোগে মামলা হয়েছে। নিত্যানন্দের এক শিষ্যকে অপহরণের অভিযোগে গ্রেপ্তারও করেছে পুলিশ। সম্পাদনা : ইকবাল খান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : info@amadernotunshomoy.com