• প্রচ্ছদ » সর্বশেষ » ভারতে তরুণী ধর্ষণ ও পুড়িয়ে হত্যা মামলার ৪ অভিযুক্ত পুলিশের এনকাউন্টারে নিহত


ভারতে তরুণী ধর্ষণ ও পুড়িয়ে হত্যা মামলার ৪ অভিযুক্ত পুলিশের এনকাউন্টারে নিহত

আমাদের নতুন সময় : 07/12/2019


রাশিদ রিয়াজ, আসিফুজ্জামান পৃথিল : গতকাল শুক্রবার ভোরে এই ঘটনা ঘটে। গত সপ্তাহে এই ধর্ষণের পর প্রতিবাদে উত্তাল হয়েছিলো ভারত। এমনকি রাজ্যসভার এমপি জয়া বচ্চন বলেছিলেন, ধর্ষকদের যেনো প্রকাশ্যে পিটিয়ে হত্যা করা হয়। পুলিশ বিবিসি তেলেগুকে জানায়, এই ৪ সন্দেহভাজন পুলিশের অস্ত্র ছিনিয়ে পালানোর চেষ্টা করছিলো। ভোরে ধর্ষণ ও হত্যার স্থানে আরও তদন্তের জন্য এদের নিয়ে যায় পুলিশ। যেখানে তারা এই অপরাধ করেছিলো সেখানেই তারা এনকাউন্টারে প্রাণ হারায়। এই ঘটনার পরে বিচারবহির্ভূত হত্যাকা-ের তীব্র নিন্দা জানিয়েছে মানবাধিকার সংগঠনগুলো। তারা এই ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত দাবি করেছে। অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল ইন্ডিয়ার নির্বঅহী পরিচালক অবিনাশ কুমার বলেছেন, ‘ধর্ষণ ঠেকাতে বিচারবহির্ভূত হত্যাকা- কোনও সমাধান হতে পারে না।’ ২৭ নভেম্বর হায়দরাবাদের শামশাবাদে ওই তরুণী চিকিৎসককে দলবদ্ধ ধর্ষণ করে হত্যা করে ওই চার অভিযুক্ত। পরবর্তীতে ঘটনাস্থল থেকে প্রায় ৪০ কিলোমিটার দূরে সাদনগরে পুড়িয়ে ফেলা হয় ওই তরুণীর দেহ। এরপরেই লাখো মানুষ বিচারের দাবিতে রাস্তায় নেমে আসে।
সাইবরাবাদের পুলিশ কমিশনার বললেন, ঘটনাস্থল থেকে পালানোর চেষ্টা করে অভিযুক্তরা। সে সময় পুলিশের গুলিতে তাদের মৃত্যু হয়। তেলেঙ্গানার আইনমন্ত্রী এ ইন্দ্রকরণ রেড্ডি বলেছেন, ‘অভিযুক্তরা পুলিশের অস্ত্র ছিনতাই করে পালানোর চেষ্টা করে। গুলি চালায় পুলিশ। তাতেই মৃত্যু হয় অভিযুক্তদের’। ইশ^র অভিযুক্তদের শাস্তি দিয়েছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।
গতকাল ভোররাতে ঘটনার সরাসরি তদন্তের জন্যে চার অভিযুক্তকে নিয়ে যাওয়া হয় সাদনগরে ৪৪ নন্বর জাতীয় সড়কের আন্ডারপাসের কাছে। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, সাদনগর নিয়ে যাওয়ার সময় সুযোগ বুঝে পালানোর চেষ্টা করে ওই চার জন। বাধ্য হয়ে গুলি চালায় পুলিশ। তাতেই মৃত্যু হয় ওই চার অভিযুক্তের। সাইবারাবাদ পুলিশ কমিশনার ভি সি সজ্জনার সংবাদ সংস্থা এএনআইকে জানিয়েছেন, অভিযুক্ত আরিফ, নবীন, শিবা ও চেন্নাকেশাভুলু পুলিশের গুলিতে মারা গিয়েছে। ঘটনাস্থলে নিয়ে যাওয়ার পথে সাদনগরের চাতানপল্লিতে পুলিশের হেফাজত থেকে পালানোর চেষ্টা করে অভিযুক্তরা। ঘটনাটি হয়েছে শুক্রবার রাত তিনটে থেকে ভোর ছয়টার মধ্যে। ঘটনাস্থলে গিয়েছেন উচ্চপদস্থ পুলিশ কর্মকর্তারা। ঘটনাস্থলে প্রচুর পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। সম্পাদনা : ইকবাল খান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]