ভিমরতি ধরেছে ট্রাম্পের জবাব উত্তর কোরিয়ার

আমাদের নতুন সময় : 07/12/2019


ইমরুল শাহেদ : গত মঙ্গলবার ন্যাটো সম্মেলনে উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে সামরিক ব্যবস্থা গ্রহণের যে হুমকি দিয়েছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প, তার জবাবে উত্তর কোরিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে বলা হয়েছে, ট্রাম্প সংঘর্ষের কথা বলছেন। এটাকে নির্বুদ্ধিতা হিসেবে বিবেচনা করতে হবে। এই কথাটি বুঝানোর জন্য উত্তর কোরিয়ার ভাষায় বলা হয়েছে ‘ডটেজ অব এ ডটার্ড।’ অক্সফোর্ড অভিধান অনুসারে ডটার্ড শব্দটি দিয়ে বুঝানো হয়, বৃদ্ধ বয়সে যে ব্যক্তির বুদ্ধি ও উপলব্ধিতে বৈকল্য দেখা দেয়। ২০১৭ সালেও উত্তর কোরিয়া প্রথম ট্রাম্পকে বৃদ্ধ ও দূর্বল লোক বলে উল্লেখ করে। বিবিসির কোরিয়া প্রতিনিধি লরা বিকার বলেছেন, গত এক বছরে পিয়ংইয়ং এই প্রথম প্রকাশ্যে ট্রাম্পের সমালোচনা করলো। বিবিসি
তার আগে এই দুই নেতা ২০১৮ সালের জুন মাসে সিঙ্গাপুরে এবং চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে ভিয়েতনামে বৈঠক করেছেন। কিন্তু তারপর থেকে তাদের মধ্যে কথা বন্ধ। তবে এই নেতার মধ্যে গত জুন মাসে অনির্ধারিতভাবে আরেকটি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয় দুই কোরিয়ার বিভাজিত সেনামুক্ত এলাকায়, যা ডিএমজেড নামে পরিচিত। তার কিছু পরই উত্তর কোরিয়া আবারো স্বল্পপাল্লার ব্যালিস্টিক ক্ষেপনাস্ত্র পরীক্ষা শুরু করে। তার সঙ্গে এই দুই নেতার মধ্যে ফিরে এসেছে যুদ্ধংদেহী মনোভাবও।
বছরের শেষ দিকে এসে পিয়ংইয়ং নতুনভাবে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের কথা বলেছে যুক্তরাষ্ট্রকে। যদি তা না করা হয় তাহলে তারা ভিন্ন পথ খুঁজে নেবে বলে জানিয়েছে। পক্ষান্তরে গত মঙ্গলবার ল-নে অনুষ্ঠিত ন্যাটো সম্মেলনে উত্তর কোরিয়ার নেতাকে ট্রাম্প ‘রকেট ম্যান’ হিসেবে উল্লেখ করেছেন। তিনি বলেছেন, পিয়ংইয়ংয়ের বিরুদ্ধে সামরিক শক্তি প্রয়োগের অধিকার রাখে যুক্তরাষ্ট্র। সম্পাদনা : ইকবাল খান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]