এফএম রেডিওতে মৌসুমী-সোনিয়ার উপস্থিতি প্রশংসিত

আমাদের নতুন সময় : 08/12/2019

ইমরুল শাহেদ : এফএম রেডিওগুলো শ্রোতা বাড়াতে নানা ধরনের উদ্যোগ গ্রহণ করছে। বিভিন্ন উদ্যোগের অংশ হিসেবে প্রথমেই যুক্ত করা হচ্ছে টিভি ও চলচ্চিত্র তারকাদের । সম্প্রতি রেডিও আমার শুরু করেছে স্টেইং এলাইভ উইথ সোনিয়া হোসেন অনুষ্ঠানটি। এই অনুষ্ঠানটি উপস্থাপন করছেন টিভি ও চলচ্চিত্র অভিনেত্রী সোনিয়া হোসেন। তার এক মাস পর রেডিও এবিসিতে শুরু হলো ‘মৌসুমী হাওয়া’। এই অনুষ্ঠানটির উপস্থাপিকা হলেন দর্শক পছন্দের তারকা মৌসুমী। দুটি অনুষ্ঠানই শ্রেতাদের কাছে জনপ্রিয় হয়ে ওঠছে ক্রমশ। সোনিয়া হোসেনের অনুষ্ঠানটি প্রচারিত হয় প্রতি মঙ্গলবার রাত ৯টা থেকে ১১টা পর্যন্ত। মৌসুমী উপস্থাপিত অনুষ্ঠানটি প্রচারিত হয় প্রতি রোববার। অনুষ্ঠানটি নিয়ে বেশ উচ্ছ¡সিত মৌসুমী। জানান এটা স্রেফ একটি অনুষ্ঠান নয়, দর্শকের সঙ্গে যোগাযোগের একটি মাধ্যম। মৌসুমী বলেন, ‘তিন মাস আগে এবিসি রেডিও থেকে অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনার প্রস্তাব পাই। তারপর ভেবে চিন্তে রাজি হয়ে যাই। কারণ ‘ছোটবেলা থেকেই রেডিও শুনতাম। সিনেমার নানা অনুষ্ঠান হতো। খুব ভালো লাগত। সকালে রেডিওতে রবীন্দ্রসংগীত শুনতাম। কিছুদিন ধরে মনে হচ্ছিল, উপস্থাপনার প্রস্তাবটা লুফে নিই।’ এদিকে স্টেইং এলাইভ উইথ সোনিয়া হোসেন অনুষ্ঠানটি নিয়ে উপস্থাপিকা বলেছেন, ‘আমি আগেই এই ধরনের কিছু একটা করতে চেয়েছিলাম। অফারও পেয়েছিলাম ২০১৬ সালে।’ কিন্তু শিডিউল জটিলতার কারণে তখন তিনি সেটা করতে পারেননি। তিনি বলেন, ‘এই শো’টি হলো তারুণ্যকে নিয়ে। এই শোতে তারুণ্য বিষয়ক ইস্যুগুলোই আলোচনা করা হচ্ছে। তরুণরা শুধু বাঁচার জন্য বাঁচতে চায় না, তারা বাঁচার মতো বাঁচতে চায়।’ সোনিয়া হোসেন জানিয়েছেন, তিনি উপস্থাপনায় স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করছেন। অনুষ্ঠানটির নামও রাখা হয়েছে তার নামেই। রেডিও আমার-এ প্রচারের পাশাপাশি রেডিওটির ফেইসবুক পেইজেও সরাসরি দর্শক উপভোগ করতে পারছেন সোনিয়া হোসেইনের নতুন এ শোটি। রেডিওতে প্রথমবারের মতো এ ধরনের শো নিয়ে দারুণ উচ্ছ¡সিত সোনিয়া। তিনি বলেন, ‘এই অনুষ্ঠানে কোনো অতিথি থাকবে না। আমি এবং একজন আরজে নির্ধারিত বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করছি এবং করব।’




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]