• প্রচ্ছদ » সর্বশেষ » আদালতের রায়ের দিকে তাকিয়ে বিএনপি, ইস্যুভিত্তিক কর্মসূচির মধ্য দিয়ে রাজপথে গড়াবে সরকার পতনে এক দফা আন্দোলন


আদালতের রায়ের দিকে তাকিয়ে বিএনপি, ইস্যুভিত্তিক কর্মসূচির মধ্য দিয়ে রাজপথে গড়াবে সরকার পতনে এক দফা আন্দোলন

আমাদের নতুন সময় : 10/12/2019

শাহানুজ্জামান টিটু : সিদ্ধান্ত মোটামুটি চূড়ান্ত। ১২ ডিসেম্বর দলের প্রধান খালেদা জিয়া জামিন না হলো সরকার পতনের এক দফা আন্দোলনে রাজপথে সক্রিয় হবে বিএনপি। এজন্য প্রথম দিকে ইস্যুভিত্তিক কর্মসূচি দেবে। ধাপে ধাপে তা সরকার পতনের চূড়ান্ত আন্দোলনে রুপ দেয়া হবে।
এ প্রসঙ্গে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, এ মুহূর্তে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে আন্দোলন করতেই হবে। আমরা আন্দোলনের আর কোনো বিকল্প দেখছি না। সামনে আর কোনো পথ খোলা নেই। আমরা অপেক্ষা করছিলাম সরকার কি করে। কিন্তু দেখলাম বিএনপিকে নিঃশেষ করার চেষ্টা করছে তারা। গণতন্ত্রের অন্যতম নেত্রী খালেদা জিয়াকে সর্ম্পূণ গায়ের জোরে, ক্ষমতার জোরে কারাগারে বন্দি রাখা হয়েছে। গণতন্ত্রকে মুক্ত করতে হলে তার মুক্তির বিকল্প নেই। আমরা এখনো আশা করি আদালতে তিনি ন্যায়বিচার পাবেন। বৃহস্পতিবার আদালতে তার জামিন শুনানি আছে। সরকার যদি আদালতকে ব্যবহার করে তার জামিন আটকে দেন, তা হলে রাজপথেই এর সমাধান হবে। মানুষ তখন বর্তমান সরকার পতনের আন্দোলনকে বেছে নিতে বাধ্য হবে।
দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন এক দফা আন্দোলনের বিষয়ে বলেছেন, আমরা অপেক্ষা করছি খালেদা জিয়ার জামিনের বিষয়ে কি সিদ্ধান্ত হয়। তাকে যদি জামিন না দেয়া তাহলে একদফা আন্দোলনে নামতে হবে।
জানা গেছে, সরকারের নানা ব্যর্থতা, দ্রব্যমূল্য, বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধিসহ জনসম্পৃক্ত বিষয়গুলোকে গুরুত্ব দিয়ে কর্মসূচি প্রণয়ন করা হবে। হরতাল বা অবরোধের মতো কর্মসূচি এখন পালন না করে ইস্যুভিত্তিক শান্তিপূর্ণ কর্মসূচির মাধ্যমে মাঠ দখলের পরিকল্পনা রয়েছে দলটির। বিজয় দিবসে র‌্যালি করার প্রস্তুতি নিয়েছে বিএনপি। এছাড়া ২৯ ও ৩০ ডিসেম্বর একাদশ সংসদ নির্বাচনে অনিয়ম ও আগের রাতে ভোটের প্রতিবাদে রাজধানীতে সমাবেশ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এছাড়া জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ও ২০ দলীয় জোটের শরীক দলগুলোকে আন্দোলনের অংশ করা হবে। ইতিমধ্যে আন্দোলনের নামার পূর্বপ্রস্তুতি হিসেবে কেন্দ্র থেকে কঠোর বার্তা পাঠানো হয়েছে দলের সকল ইউনিটকে। নেতাকর্মীরা রাজপথে নামছে কিনা তার প্রমাণ হিসেবে মিছিলের ছবি এমনকি ভিডিও কেন্দ্রে পাঠাতে বলা হয়েছে। বিগত আন্দোলনে ঢাকা মহানগরীর ব্যর্থতার পুর্নাবৃত্তি দেখতে চান না দলের সকল স্তরের নেতাকর্মীরা। ইতিমধ্যে মহানগর বিএনপি বিশেষ করে দক্ষিণের সভাপতি হাবিবুন নবী খান সোহেল নেতাকর্মীদের নিয়ে রাজপথে নেমেছেন। মহানগর বিএনপির নেতাদের রাজপথে দেখে উৎসাহ পাচ্ছেন তৃণমুলের নেতাকর্মীরা। এবারের আন্দোলনকে বিএনপি নেতাকর্মীরা ডু অর ডাই হিসেবে নিতে চান। সম্পাদনা : খালিদ আহমেদ




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]