• প্রচ্ছদ » প্রথম পাতা » নাগরিকত্বের জন্যে ধর্মীয় পরীক্ষা একটি দেশের গণতান্ত্রিক মূল্যবোধের ভিত্তিকে দুর্বল করে দেয়, ভারতে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল পাস সম্পর্কে মার্কিন কংগ্রেস কমিটি


নাগরিকত্বের জন্যে ধর্মীয় পরীক্ষা একটি দেশের গণতান্ত্রিক মূল্যবোধের ভিত্তিকে দুর্বল করে দেয়, ভারতে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল পাস সম্পর্কে মার্কিন কংগ্রেস কমিটি

আমাদের নতুন সময় : 10/12/2019

ইকবাল খান : নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল ভারতের লোকসভায় পাস হওয়ায় মার্কিন কংগ্রেসের বৈদেশিক সম্পর্ক বিষয়ক কমিটি এক বিবৃতিতে এই মন্তব্য করেছে। কমিটির বিবৃতিতে বলা হয়, ধর্মীয় বহুত্ববাদ ভারত ও যুক্তরাষ্ট্রের মূল ভিত্তি। এদিকে যুক্তরাষ্ট্রের আন্তর্জাতিক ধর্মীয় স্বাধীনতা বিষয়ক ফেডারেল কমিশন (ইউএসসিআইআরএফ) বলছে, ভারতের নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল পার্লামেন্টের উভয় কক্ষে পাস হলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ ও অন্যান্য শীর্ষ নেতার বিরুদ্ধে মার্কিন নিষেধাজ্ঞা আরোপের দাবি জানাবে । এনটিভি নিউজ, ডন।
মার্কিন এই কমিশন ভারতের নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলকে ‘ভুল দিকে বিপজ্জনক মোড় নেওয়া’ বলে মন্তব্য করেছে বলে জানিয়েছে প্রেস ট্রাস্ট অব ইন্ডিয়া (পিটিআই) । টানা ৭ ঘণ্টা বিতর্ক শেষে সোমবার স্থানীয় সময় দিবাগত রাত ১২টার পর লোকসভায় নাগরিকত্ব সংশোধন বিল পাস হয়। বিলের পক্ষে ৩১১ ভোট পড়ে, বিপক্ষে ৮০। বিলটি এখন রাজ্য সভায় তোলা হবে।
লোকসভায় বিল পাসের জন্য দেওয়া ভাষণে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বলেন, বাংলাদেশ, পাকিস্তান ও আফগানিস্তান থেকে হিন্দু, শিখ, বৌদ্ধ, জৈন ও খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের যেসব সদস্য ধর্ম, প্রাণ ও সম্মান রক্ষার তাগিদে অত্যাচারিত হয়ে ভারতে চলে এসেছেন, তাঁদের সবাইকে নাগরিকত্ব দেওয়া হবে। নাগরিকত্ব তাঁদেরই দেওয়া হবে, যাঁরা এই তিন দেশ থেকে ২০১৪ সালের ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে ভারতে চলে এসেছেন। আগের আইন অনুযায়ী, ১২ বছর ভারতে থাকলে কেউ নাগরিকত্ব পাওয়ার অধিকারী হতেন। সংশোধিত আইন অনুযায়ী, সেই সময়সীমা কমিয়ে ৬ বছর করা হয়েছে। তবে বেশির ভাগ উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্যকে এই বিলের আওতার বাইরে রাখা হয়েছে। সংবিধানের ষষ্ঠ তফসিলের আওতায় বিভিন্ন রাজ্যের যে যে অংশ রয়েছে এবং ‘ইনার লাইন পারমিট’ (আইএলপি) যে রাজ্যগুলোয় চালু রয়েছে, সেখানে এই আইন বলবৎ হবে না। আইএলপির আওতায় মণিপুর ছিল না। তাকেও অন্তর্ভুক্ত করা হচ্ছে বলে অমিত শাহ জানান।
অন্যদিকে নাগরিকত্ব (সংশোধনী) বিল সম্পর্কে আন্তর্জাতিক ধর্মীয় স্বাধীনতা সংক্রান্ত মার্কিন কমিশন ইউএসসিআইআরএফের বিবৃতিকে ভারত সরকার পক্ষপাতদুষ্ট বলে মন্তব্য করেছে।




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]