• প্রচ্ছদ » » মুক্তিযুদ্ধে কারা বিরোধিতা করেছিলো, কে, কী ধরনের ভ‚মিকা পালন করেছেÑ ইতিহাসে তা উল্লেখ থাকতেই হবে, বললেন মফিদুল হক


মুক্তিযুদ্ধে কারা বিরোধিতা করেছিলো, কে, কী ধরনের ভ‚মিকা পালন করেছেÑ ইতিহাসে তা উল্লেখ থাকতেই হবে, বললেন মফিদুল হক

আমাদের নতুন সময় : 11/12/2019

আশিক রহমান : ষোলো ডিসেম্বর রাজাকারদের তালিকা প্রকাশ করা হবে ইতোমধ্যে জানিয়েছেন মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক। অনেক দিন ধরে বিভিন্ন ব্যক্তি ও সংগঠনের কাছ থেকে এই দাবি আসছিলো। তার মধ্যে অন্যতম মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরের ট্রাস্ট্রি মফিদুল হক। সরকারের এই উদ্যোগ মহতী উল্লেখ করে তিনি বলেন, রাজাকারদের তালিকা প্রকাশ করা জরুরি। একবারে যদি পূর্ণাঙ্গ তালিকা প্রকাশ করা না যায়, একবার প্রকাশ হলে, পরবর্তী সময়ে ধীরে ধীরে তালিকা থেকে বাদ যাওয়াদের যুক্ত করা যাবে। কেন জরুরি মনে করছেন রাজাকারদের তালিকা প্রকাশ? মফিদুল হক বলেন, জানতে হবে মুক্তিযুদ্ধে কারা স্বাধীনতার বিরোধিতা করেছিলো। কারা, কী ভ‚মিকা পালন করেছিলোÑ ইতিহাসে তা উল্লেখ থাকতে হবে। এক প্রশ্নের জবাবে মফিদুল হক বলেন, মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকাটা এখন একটা দুর্ভাগ্যজনক বিষয়ে পরিণত হয়েছে। এতো গুরুত্বপূর্ণ একটা বিষয়, অথচ বিভিন্ন সময় সেটা নানারকমভাবে রাজনীতিরও শিকার হতে হয়েছে। সূচনাটা হয়েছে মুক্তিয্দ্ধু কল্যাণ ট্রাস্ট থেকে, অনেকগুলো পরিত্যক্ত জমি ও কলকারখানা দেওয়া হলো যে, স্বনির্ভর একটা প্রতিষ্ঠানে রূপান্তিরত হলো প্রতিষ্ঠানটি। বঙ্গবন্ধুর লক্ষ্য ছিলো খুবই সুদূর প্রসারী। একইসঙ্গে মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকার ইস্যুটাও তখন উঠে এসেছিলো। কিন্তু পঁচাত্তরের পরে নানা রকম রাজনৈতিক বিপর্যয়ও এই জায়গাটাতে প্রভাব বিস্তার করেছে। এর সঙ্গে যুক্ত হয়েছে দুর্নীতি ও নীতিভ্রষ্ট মানসিকতাও।
আমরা জানি, অনেক মুক্তিযোদ্ধা রয়েছেন যারা অসচ্ছল, নানাভাবে জীবনযুদ্ধে লড়াই করছেন তারা যখন এই স্বীকৃতিটা পান তখন তাদের জন্য বড় একটা জায়গা তৈরি হয় সামাজিক ও রাষ্ট্রীয়ভাবে। একইসঙ্গে আর্থিকভাবেও একটা স্বস্তির জায়গা নিশ্চিত হয়। গ্রামের একজন দুস্থ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের জন্য ১০ হাজার টাকাও অনেকরকমভাবে সহায়তা যুগিয়েছে। যেসব মুক্তিযোদ্ধা অভাবগ্রস্ত, যাদের ঘরবাড়ি নেই, তা করে দেওয়ার হবে ব্যবস্থা করেছে সরকার। মুক্তিযোদ্ধাদের উদ্দেশ্যে নেওয়া সরকারি কর্মসূচিগুলো ঠিক আছে। বাস্তবায়নও হয়তো নিখুতভাবে হবে না, তবে যাদের প্রাপ্য তারা যেন এই স্বীকৃতি ও সুবিধাগুলো পান।




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]