• প্রচ্ছদ » » ভারত এনআরসি-ক্যাব দুটো ফাঁদই সাজাচ্ছে বাংলাদেশি প্রেক্ষাপট সামনে রেখে


ভারত এনআরসি-ক্যাব দুটো ফাঁদই সাজাচ্ছে বাংলাদেশি প্রেক্ষাপট সামনে রেখে

আমাদের নতুন সময় : 12/12/2019

ভারত এনআরসি-ক্যাব দুটো ফাঁদই সাজাচ্ছে বাংলাদেশি প্রেক্ষাপট সামনে রেখে। পুরো খেলাটাই কিন্তু হচ্ছে বাংলাদেশকে সামনে রেখে। বাংলাদেশের জন্য এতো বড় পরিষ্কার অশনিসংকেত অথচ কি আশ্চযÑ না বাংলাদেশ সরকার, না সাধারণ মানুষের বোধে আছে তা। আমাদের পররাষ্ট্রমন্ত্রী তো ভারতের বেতনভুকের মতো প্রতিদিন ভারত বন্দনা করেই যাচ্ছেন।
এনআরসি-ক্যাবের প্রয়োজনীয়তার যৌক্তিক ভিত্তি তৈরি করতে যেভাবে অমিত শাহ সংসদের ভেতরে ও বাইরে বাংলাদেশের উদাহরণ দিচ্ছেন প্রতি মুহূর্তে, তাতে তো মনে হচ্ছে ওটাই বিশ্বের সবচেয়ে সন্ত্রাসী রাষ্ট্র। তারা এপারে জিহাদি পাঠাচ্ছে, ওপারে হিন্দু মারছেÑ অতএব, ও রকম একটা বদমায়েশ দেশ থেকে পরিত্রাণ পাওয়ার জন্য এ রকম শক্ত আইন জরুরি। একইসঙ্গে ভিসা ওভারস্টে করার জন্য শুধু মুসলমানদের জরিমানা দ্বিগুণ করে ছক সাজাচ্ছে মোদী-অমিত শাহের ভারত। এনআরসি-ক্যাবে আফগানিস্তান, পাকিস্তান ও বাংলাদেশের কথা উল্লেখ থাকলেও তাদের নাগরিকত্ব বঞ্চিতদের যে শুধু বাংলাদেশেই পুশইন করা হবে তাতে কি কোনো সন্দেহের অবকাশ আছে? আফগানিস্তানের সঙ্গে ভারতের কোনো সীমান্তই নেই, আর পাকিস্তান সীমান্তে সর্বদাই যুদ্ধাবস্তা। এর সঙ্গে যোগ করুন ভারতের সঙ্গে করা দেশের স্বার্থবিরোধী সাম্প্রতিক পানি বণ্টন চুক্তি, ট্রানজিট চুক্তি, বন্দর ব্যাবহার চুক্তি, ভারতীয় সামরিক সরঞ্জাম কেনার লোন এবং সাম্প্রতিক ভারত সফরে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীকে যথাযথ প্রটোকল না দেয়া। তারপরও কি আমাদের বোধগম্য হচ্ছে না কি ছক সাজাচ্ছে ভারত? কি ভয়াবহ দুর্যোগ ঘনিয়ে আসছে আমাদের সার্বভৌমত্বের উপর? পড়ঁৎঃবংু : গড়রহ অযংধহ.Ñসংগৃহীত




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]