• প্রচ্ছদ » শেষ পাতা » প্রধানমন্ত্রীর মুখের দিকে চেয়ে বিচার করলে সুবিচার আসবে না, বললেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের সাবেক বিচারপতি মো. আবদুল মতিন


প্রধানমন্ত্রীর মুখের দিকে চেয়ে বিচার করলে সুবিচার আসবে না, বললেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের সাবেক বিচারপতি মো. আবদুল মতিন

আমাদের নতুন সময় : 15/12/2019

রাজু আলাউদ্দিন : শনিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে হিউম্যানিটি ফাউন্ডেশন আয়োজিত ‘নির্বাহী বিভাগ হতে বিচার বিভাগ পৃথকীকরণের এক যুগ’ শীর্ষক মুক্ত আলোচনা সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, লোকে কী বলবে, প্রধানমন্ত্রী কী বলবে; তাদের মুখের দিকে চেয়ে যদি বিচার করি, সুবিচার হবে না। সুবিচার অনেক সময় আইন মেনে হয় না। আইনকে ব্যাখ্যা করতে হবে এমনভাবে, যেন সঠিক কাজটা হয়। আমরা যদি সজাগ ও সৎ থাকি তবেই জাজমেন্ট ভালো হবে।
সাবেক এই বিচারপতি বলেন, আমাদের বিচার বিভাগ বরাবরই রাষ্ট্রের নিয়ন্ত্রণে ছিল এবং সব সময়ই বিরোধী দল বিচার বিভাগের স্বাধীনতার কথা বলে। স্বাধীনতা যদি আপনার চরিত্রের মধ্যে না থাকে, তাহলে হাজার নিয়ম-নীতি থাকলেও আপনি স্বাধীন হতে পারবেন না। আমাদের চরিত্র ও অনুভূতিতে স্বাধীনতার বোধ থাকা প্রয়োজন, তবেই সত্যিকারের স্বাধীনতা আসবে। তিনি আরও বলেন, ন্যায়বিচার মানে মনিবের আনুগত্য নয়; বরং আইনের আনুগত্য। গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্তের ক্ষেত্রে বার ও বেঞ্চের মধ্যে পারস্পারিক আলোচনা করা প্রয়োজন।
সভায় সাবেক মন্ত্রিপরিষদ সচিব আলী ইমাম মজুমদার বলেন, বিচার বিভাগ সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের শাসন বিভাগে সম্পৃক্ত করা উচিত না। বিচারক নিয়োগে প্রধান বিচারপতির মতামত প্রাধান্য পেলে রাষ্ট্রপতির ক্ষমতা খর্ব হয়। সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার এএম মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেন, সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট ও আপিল বিভাগ হচ্ছে সর্বোচ্চ আদালত। তারা যে রায় দেবেন সেটাই ফাইনাল। সম্পাদনা : সমর চক্রবর্তী




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : info@amadernotunshomoy.com