• প্রচ্ছদ » » সিএবি হচ্ছে বিজেপির পাতা ক্যাচ-ফাঁদ বিরোধিরা সেই ফাঁদেই পা দিলো


সিএবি হচ্ছে বিজেপির পাতা ক্যাচ-ফাঁদ বিরোধিরা সেই ফাঁদেই পা দিলো

আমাদের নতুন সময় : 15/12/2019

বিপ্লব পাল

দুদিন আগেই লিখেছিলাম সিএবি হচ্ছে বিজেপির পাতা ক্যাচ-ফাঁদ। বিরোধিরা সেই ফাঁদেই পা দিলো। ইতিহাস থেকে কেউ শিক্ষা নিচ্ছে না। ফলে ইতিহাসের পুনরাবৃত্তি হয় বারবার। দ্বিজাতিতত্ত¡ কি সত্যি বাস্তব? হিন্দু-মুসলমান ভারতীয়রা কি সত্যিই আলাদা? আমরা সবাই জানি ওটা এই উপমহাদেশের বৃহত্তম খতরনাক ঢপবাজিÑ যা এই জাতিকে সব থেকে বেশি অন্ধকার উপহার দিয়েছে। কিন্তু ঢপের চপ বললেই তো হবে নাÑ ওই ঢপ খাইয়েই জিন্নাহ পাকিস্তান বের করে নিলো। কীভাবে নিয়েছিলো? গরিব মুসলমানদের খেপিয়ে দাঙ্গাবাজ বানিয়ে। কারণ ওইটা মুসলমান সমাজের সব থেকে বড় সমস্যা- ধর্মের নামে উসকে দিলেই দাঙ্গা করতে নেমে যাবে। মুসলিম সমাজের এই দুর্বলতা হচ্ছে বিজেপির সব থেকে বড় পলিটিক্যাল ক্যাপিটাল। সিএবি নিয়ে বিজেপি সেটাই চাইছিলো। মুসলিমদের একবার দাঙ্গা করতে নামাতে পারলেইÑ এই প্রজন্মের বাঙালি মানসে নেমে আসবে দেশভাগের সময়ের দাঙ্গার স্মৃতি। লাভ হবে কার? বিজেপির। বাংলায় আরও হিন্দু ভোট সংহত হবে। যেখানে দরকার ছিলো সংযত প্রতিক্রিয়াÑ অর্থনীতি এবং অন্যান্য ব্যর্থতা নিয়ে বিজেপিকে চেপে ধরা। তার বদলে সিএবি নিয়ে মুসলমানদের খেপিয়ে দাঙ্গা করে, বিজেপির হাতে বলে বলে ভোট তুলে দিচ্ছে বিরোধীরা। দুদিন আগেই বলেছিলাম সিএবি নিয়ে বিরোধী আচরণ নির্বোধ। যে হারে এলিট বঙ্গ লিবারেল বুদ্ধিজীবীরা আইন অমান্যের ডাক দিচ্ছিলেন এবার এই দাঙ্গাবাজদের সামলাতে পারবেন তো? ২০২১-এ বাংলায় বিজেপির পরাজয় নিশ্চিত ছিলো। এবার মনে হচ্ছে জেতা ম্যাচ হারতে চলেছে তৃণমূল। এখনো সময় আছে। ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : info@amadernotunshomoy.com